চট্টগ্রামে কো অপারেটিভ সোসাইটির বিরুদ্ধে শরণার্থীদের উচ্ছেদ অভিযোগ

0
.

চট্টগ্রাম মহানগরীর রৌফাবাদ এলাকায় বাংলাদেশ কো অপারেটিভ সোসাইটিসহ প্রভাবশালী ভুমি দস্যুদের কর্তৃক উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করেছে স্থানীয় ভুমিহীন পরিবারের সদস্যরা।

মঙ্গবাল রৌফাবাদ আবাসিক এলাকায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে ত্রাণ ও পূর্ণবাসন মন্ত্রনালয়রে অধীনে পূর্ণবাসিত ভুমিহীন কয়েকশত পরিবারের সদস্যরা অংশ নেন।

এসময় তারা অভিযোগ করে বলেন সরকার স্বাধীনতা যুদ্ধের পর তাদেরকে স্বরনার্থী হিসেবে এখানে পূর্নবাসন করে। কিন্তু স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ভুমি দস্যু ও বো অপারেটিভ সোসাইটিসহ যোগসাজস করে এসব ভূমিহীনদের উচ্ছেদের নানা অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

প্রভাবশালী সিন্ডিকেটটি এসব ভুমিহীন লোকজনকে উচ্ছেদে ব্যর্থ হয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে নানা হয়রানি অব্যাহত রেখেছে। বক্তারা বলেন পূর্ণবাসন মন্ত্রনালয়রে জায়গায় পূর্ণবাসিত ভুমিহীনদের উচ্ছেদ করে ইজারা চুক্তির বাইরে সরকারী খাস জমি অবৈধ দখলের মাধ্যমে জোর পূর্বক দালান নির্মাণ অব্যাহত রেখেছে কো অপারেটিভ সোসাইটি ।

বক্তারা বলেন সরকার কো অপারেটিভ সোসাইটিকে ৪৩ একর ভূমি ইজারা দিলেও পরবর্তীতে সোসাইটি কমিটি ত্রান ও পূর্নবাসনের জায়গাসহ অনেক ব্যক্তি মালিকানাধীন ভূমি জবর দখল করে নেয়। এ ছাড়া সমাজ কল্যাণ,সরকারী শিশু নিবাস, আমিন জুটমিলের জমিসহ বিপুল পরিমাণ সরকারী বেসরকারী ও ব্যক্তি মালিকানাধীন ভূমি তারা অবৈধ দখল করে সেখানে দালান নির্মাণ করছে। সরকারী ভুমি থেকে স্বরনার্থী লোকজনকে উচ্ছেদ করতে রাতের বেলায় স্থানীয় মাস্তান এবং পুলিশ দিয়ে বসবাসকারীদের হয়রানি করছে।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া লোকজন বলেন সরকার ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে আ¤্রয় দিতে পারলে আমরা স্বাধীনতা সংগ্রামের পর থেকে এদেশে রয়েছি আমরা কেন থাকতে পারবনা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন হাজি শহীদুল্লাহ স্বপন,নুর জাহান বেগম,শাকীল আহমেদ মুন্না,আজগর আলী, সাহানা হালিম,কোরবান আলী,মো.হারুন,হাছান মেস্ত্রী,শাহ আলম প্রমুখ।

কোন মন্তব্য নেই