স্ত্রী নয় বান্ধবী নিয়ে ঘুরেন ছাত্রলীগ সভাপতি

1
ব্রেকিং নিউজ
  • *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

.

বিয়ের অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ সভাপতি মো. রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন জানিয়েছেন সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ঘনিষ্ট ছবির মেয়েটি তার বান্ধবী।

বুধবার (১৫ মে) রাত ১২টায় রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত জরুরি সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান শোভন।

ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন বলেন, কেউ ছাত্রলীগ করলে তার বান্ধবী থাকতে পারবে না এমন তো কথা নেই। আপনারা জানেন ছাত্রলীগের সম্মেলন হওয়ার পর থেকেই আমার সম্পর্কে এ ধরনের একটি বিতর্ক তৈরি করা হয়েছিল। সে আমার বান্ধবী।

এ সময় ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, অপেক্ষা করেন, দাওয়াত পাবেন।

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে বিবাহিত দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম-ফেইসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিচ্ছে ছাত্রলীগের পদ বঞ্চিতরা। ছাত্রলীগ সভাপতি ও তার স্ত্রীর ছবি ইতোমধ্যে ভাইরাল।
সোমবার (১৩ মে) ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ রুবেল ফেসবুকে ছাত্রলীগ সভাপতি ও তার স্ত্রীর ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‌‌’এগুলো কি রে ভাই? আপা আপনি কিছু একটা করেন।’
এছাড়া আরো অভিযোগ জানিয়েছে এই কমিটিতে কোনও পদ পায়নি ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জারিন দিয়া। এর আগে তিনি গণিত বিভাগ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে উদ্দেশ করে ফেসবুকে এই নেত্রী লিখেছেন ‘রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বানী ভাই, আপনারা যেসব মেয়েদের কমিটিতে রেখেছেন, তারা কয়দিন থেকে রাজনীতি করে? নিজে বিবাহিত বলে কমিটিতে দুনিয়ার বিবাহিত মেয়েদের রেখেছেন। গোলাম রাব্বানী ভাই আমাকে সবার সামনে বলছিলেন, দুই দিনের মেয়ে কেমনে পোস্ট পাইছো বুঝি নাই। অনেক তথ্য অপেক্ষা করছে আপনাদের জন্যে। এই বিবাহিত বিতর্কিত কমিটি মানি না, মানবো না। আমার শ্রমের মূল্য দিতে হবে আপনাদের।’

এই স্ট্যাটাসের বিষয়ে জারিন দিয়া বলেন, ‘হ্যাঁ, এটি আমার পোস্ট।’ ছাত্রলীগের সভাপতি বিবাহিত এই বিষয়ে তার কাছে কী প্রমাণ রয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমার কাছে কয়েকটি ছবি আছে, যেগুলো দেখলে সবাই বুঝতে পারবে। তবে, সময় আসুক সে ছবিগুলো প্রকাশ করবো। এছাড়া তিনি যে বিবাহিত তা সবারই জানা আছে। আর রাব্বানী আমাকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই পদ দেননি।’

প্রথম মন্তব্য