সেই বৃদ্ধা মায়ের পা ধরে ক্ষমা চেয়ে ঘরে নিলেন সন্তানরা

0
.

পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপে গফরগাঁওয়ের সেই বৃদ্ধা মায়ের পায়ে ধরে ক্ষমা চেয়ে ঘরে নিয়েছেন তিন সন্তান। আর কোনোদিন মায়ের সাথে অন্যায় আচরণ করবে না মর্মে লিখিত দিয়ে রাতেই বাসায় নিয়ে গেছেন তারা।

সোমবার (২৭ মে) রাত সাড়ে আটটার দিকে গফরগাঁও থানায় পুলিশ, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্যদের এক বৈঠকে নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে তিন সন্তান নি:শর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন তারা। পরে সর্বসম্মতিক্রমে পুলিশ আটককৃত ছেলে ও নাতিকে ছেড়ে দেয়। মাফ চেয়ে ভরণপোষণের দায়িত্ব নেওয়ায় পর গফরগাঁও থানার পক্ষ থেকে বৃদ্ধা মা হাজেরাকে ঈদ উপহার নতুন শাড়ী, সেমাই, চিনি, সাবান, নারকেল তেলসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী প্রদান করা হয়।

.

এসময় গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার চৌধুরী, গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল আহাদ খান এবং গফরগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সামসুল আলমসহ সাংবাদিক ও স্থানীয় গণ্যমান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত রোববার ছেলেরা বৃদ্ধ মাকে রাস্তায় ফেলে রেখে চলে যায়। পরে পুলিশ, গ্রাম পুলিশ এবং স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাকে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়।

*৮০ বছরের বৃদ্ধা মাকে খোলা আকাশের নীচে ফেলে গেল সন্তানরা

 

কোন মন্তব্য নেই