বিএসএমএমইউ পেট্রোল বোমার সাথে বিএনপির যোগসুত্র আছে কিনা তদন্ত প্রয়োজন-তথ্যমন্ত্রী

1
.

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে মেডিকেল (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে পেট্রল বোমা পাওয়ায় আওয়ামী লীগ বেশি উদ্বিগ্ন উল্লেখ্য করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে পূর্ব থেকেই অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছেন। তাকে সেখানে চিকিৎসা না করানোর বিষয় নিয়ে বিএনপি অনেক কিছু করেছে। এখন বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে পেট্রোল বোমা সদৃশ বস্তু পাওয়ার বিষয়টি তাদের কোন পরিকল্পনা কিনা সেটাও ভাববার বিষয়। এ ব্যাপারে তদন্ত হওয়ার প্রয়োজন আছে। তদন্তে সঠিক তথ্য বেরিয়ে আসবে।

তিনি শনিবার বিকালে চট্টগ্রাম মহানগরীর সিরাজদ্দৌলা রোড দেওয়ানজী পুকুর পাড়স্থ বাসভবনে সংবাদ কর্মীদের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় গণমাধ্যম কর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পেট্রোল বোমা সদৃশ বস্তু পাওয়া গেছে -একথা সত্য। তবে প্রশ্ন হচ্ছে সেখানে এই বস্তু কোথা থেকে এলো? কারাই বা পেট্রোল বোমা সদৃশ বস্তু রেখে গেল। পেট্রোল বোমা নিয়ে যারা কাজ করে তারাই এটা ভাল বলতে পারবেন। পেট্রোল বোমার সাথে বিএনপি ভাল পরিচিত। তারা বিগত সময়ে এদেশে পেট্রোল বোমা সন্ত্রাস চালিয়ে শতাধিক মানুষ হত্যা করেছে। হাজার কোটি টাকার দেশের সম্পদ নষ্ট করেছে। এই বিএনপির পেট্রোল বোমা রাজনীতি সম্পর্কে জনসাধারণ জানে।

ঈদের দিন খালেদা জিয়ার সাথে নেতাকর্মীদেরকে দেখা করতে না দিয়ে কারা কর্তৃপক্ষ জেল কোড অমান্য করেছেন – বিএনপি মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলামের এমন অভিযোগের বিষয়ে তথ্য মন্ত্রী বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন খালেদা জিয়ার সাথে পরিবারের সাত জন সদস্য দেখা করেছেন। ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। তারা সেখানে অনেকক্ষণ ছিলেন। এখানে জেল কোড অমান্যের প্রশ্ন অবান্তর। তাছাড়া মীর্জা ফখরুল ইসলাম সাহেব তো আর খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্য নন।

বৃহস্পতিবার বিএসএমএমইউ হাসপাতালের প্রশাসনিক ভবনের তৃতীয় তলার রেজিস্ট্রারের কক্ষের সামনে থেকে পেট্রোল বোমাসদৃশ একটি বোতল উদ্ধার করে শাহবাগ থানার পুলিশ।

এই হাসপাতালেরই আরেকটি ভবনে কেবিন ব্লকের ৬২১ নম্বর কক্ষে কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া চিকিত্সাধীন আছেন।