ওবায়দুল কাদেরের ‘স্বস্তির ঈদে’ সড়কে ঝরল ৫৭ প্রাণ

1
ব্রেকিং নিউজ
  •                 
.

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেছেন, ঈদের আগে ঘরে এবং ঈদের পরে কর্মস্থলে ফেরার পথে বাড়তি ভাড়া প্রদান ও বিভিন্ন গণপরিবহনে টিকেট ও ভাড়া নিয়ে নানমূখী হয়রানীর শিকার হতে হয়েছে যাত্রীদের। ঈদ বখশিষের নামে কিছু অসাধু পরিবহন মালিক ও হেলপাররা নির্বিঘ্নে চালিয়ে যাচ্ছে ভাড়া নৈরাজ্য। ঈদ মৌসুমে ভাড়া নিয়ে যাত্রীদের ওপর জুলুম যেন নিয়মে পরিণত হয়েছে। অদক্ষ চালক, ফিটনেস বিহীন যানবাহন, বাস, ট্রেন ও লঞ্চের ছাদে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাত্রীরা যাতায়াত করতে বাধ্য হয়েছেন। ওবাইদুল কাদেরের ‘স্বস্তির ঈদে’ সড়কেই ঝরেছে ৫৭ প্রাণ।

তিনি আজ (১০ জুন) সোমবার বিকালে ৭ নং পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ড় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে  মুরাদপুরের মোহাম্মদপুরস্থ শেখ মমতাজ টাওয়ারের সামনে এক ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিতির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

আবু সুফিয়ান বলেন, আওয়ামীলীগ জিয়া পরিবারকে সবচেয়ে বেশী পায়। তাই বেগম খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে তাকে অন্যায়ভাবে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। শেখ হাসিনা এখন তারেক রহমান আতংকে ভূগছেন। তারেক আতংকে শেখ হাসিনার ঘুম হারাম হয়ে গেছে। তাই তিনি আবুল তাবুল বকছেন। তিনি বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুন:রুদ্ধার আন্দোলনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

ওয়ার্ড় বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ আসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি সাবেক কাউন্সিলর নাজিম উদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সম্পাদক ইসকান্দার মির্জা, মনজুর আলম মন্জু, আনোয়ার হোসেন লিপু, মহানগর বিএনপির মৎস্যবিষয়ক সম্পাদক মো. বখতেয়ার, সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. ইদ্রিস আলী, সহ-শ্রম সম্পাদক আবু মুছা, বায়েজিদ থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের জসিম, মোহরা ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি জানে আলম জিকু।

যুবদল নেতা মো. আলী শাকির পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মুন্সি, আমিন শিল্পাঞ্চল ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, নগর যুবদলের সহ সভাপতি ম, হামিদ, সিঃ যুগ্ম সম্পাদক মোশারফ হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক এরশাদ হোসেন, সেলিম উদ্দিন রাসেল, যুবদল নেতা জাফর আহমদ খোকন, জিল্লুর রহমান জুয়েল, গুলজার হোসেন, হাফেজ মো. কামাল, মোহাম্মদ আলী, সাইদুল ইসলাম, মো. এসকান্দর হোসেন, বিএনপি নেতা আইয়ুব আলী, আফিল উদ্দিন, মনিরুল ইসলাম মনু, এম এ নাছের, এম এ হামিদ দিদার, ওমর ফারুক, আবদুল হাই, ফখরুল ইসলাম শাহীন, আইয়ুব খান, সোলায়মান হোসেন মনা, মো. জাবেদ, সাইদুল ইসলাম মাসুম, মো. নাছির, মো. রানা, সাইফুল প্রমুখ।

প্রথম মন্তব্য