২৩ বছর সাজা শেষে মুক্তি পাওয়া মর্জিনাকে সেলাই মেশিন দিল কারা কর্তৃপক্ষ

4
ব্রেকিং নিউজ
  • *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

                    *উদ্বোধন হল বেনাপোল-ঢাকা ট্রেন বেনাপোল এক্সপ্রেস

.

হত্যা মামলায় ২৩ বছর সাজা ভোগের পরে মুক্তি পাওয়া মর্জিনা বেগম (৫২) নামের এক নারী বন্দিকে সেলাই মেশিন প্রদান করেছে বাগেরহাট জেলা কারাগার কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে জেলা কারাগার গেটে ওই নারীর হাতে সেলাই মেশিন তুলে দেন জেল সুপার মোঃ গোলাম দস্তগীর। মর্জিনা বেগম মোরেলগঞ্জ উপজেলার গুয়োবাড়িয়া গ্রামের সাহেব আলী শেখের স্ত্রী।

জেলা কারাগার সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ২০ জুলাই স্বামীর বাড়িতে নিজ সতিনকে হত্যা করে দুই কন্যা সন্তানের জননী মর্জিনা বেগম। ওইদিনই পুলিশ মর্জিনাকে গ্রেফতার করে। পরে ২১ জুলাই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয় তাকে। পরে মামলার স্বাক্ষী-প্রমাণ শেষে আদালত মর্জিনাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন।

যশোর কারাগারে ১০ বছর এবং বাগেরহাট কারাগারে অবশিষ্ট সময় কাটান মর্জিনা। মর্জিনার ভাল আচরণের জন্য সাত বছর সাজা কমিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে মর্জিনাকে মুক্তি দেয় কারাগার কর্তৃপক্ষ।

মর্জিনা বলেন, জীবনের বেশিরভাগ সময় কারাগারে কাটিয়েছি। এখানে সবার কথামত চলেছি। আজ চলে যাচ্ছি। আমি যে মেশিনটা পেয়েছি সেটা দিয়ে বাড়ির সামনে একটি দোকান দেওয়ার চেষ্টা করব।

জেলার এসএম মহিউদ্দিন হায়দার বলেন, ভাল আচরণের জন্য সাজা কমিয়ে নির্ধারিত সময়ের সাত বছর আগে মর্জিনাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। তাকে পুনর্বাসনের জন্য অপরাধী সংশোধন ও পূনর্বাসন সমিতির পক্ষ থেকে একটি সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়েছে।

4 মন্তব্য