যে কোন সময় গ্রেফতার ওসি মোয়াজ্জেম!

0
.

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ওয়ারেন্ট জারি হওয়া ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন দেশেই আছেন। তার দেশত্যাগের সব পথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে তিনি গ্রেফতার হবেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

আজ বুধবার রাজধানীর বকশীবাজারে কারা কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত ‘কারা অধিদফতরের উদ্ভাবনী মেলা ও শোকেসিং-২০১৯’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে ধরা যাচ্ছে না, বিষয়টি ঠিক নয়। তার দেশত্যাগের সব পথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তিনি দেশেই আছেন। আর যেকোনো সময় তাকে গ্রেফতার করা হবে।

মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দি ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়ানোর মামলার আসামি সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে পলাতক রয়েছেন।

গত ১৭ মে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) দেয়া তদন্ত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মাদ আস সামছ জগলুল হোসেন মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন। এরপরই গা ঢাকা দেন মোয়াজ্জেম।

এদিকে ঢাকায় পুলিশের কয়েকজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ঢাকাতেই অবস্থান করছেন ওসি মোয়াজ্জেম। তার অবস্থানও জানা আছে পুলিশের। সূত্র বলছে, যে কোন সময় গ্রেফতার হতে পারেন ওসি মোয়াজ্জেম।

সূত্র মতে, মে মাসেই বিভাগীয় তদন্ত ও মামলার কাজের কথা বলে ঢাকায় চলে আসেন ওসি মোয়াজ্জেম। সেই থেকে তিনি কর্মস্থলে অনুপস্থিত। এরমধ্যে নিজের যশোর সদরের চাঁচড়া এলাকার বাড়ীতেও যাননি তিনি।

এ বিষয়ে ফেনীর সোনাগাজী সার্কেলের এএসপি শফিকুল আহমেদ ভুঁইয়া জনিয়েছেন, ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে গ্রেফতারে একটি টিম এখন ঢাকায় কাজ করছে।

সে হিসাবে এ কথা স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে, ওসি মোয়াজ্জেম এখন ঢাকাতেই অবস্থান করছেন।

পিবিআইয়ের এসপি আহসান হাবিব পলাশ জানান, ওসি মোয়াজ্জেমকে এখন যে কোন এলাকার পুলিশ গ্রেফতার করতে পারে। এমনকি সাধারণ মানুষও তাকে ধরে পুলিশে দিতে পারেন। তবে মূল দায়িত্বে রয়েছেন সোনাগাজী থানা পুলিশ।

এদিকে গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে পলাতক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে যে কোন মূল্যে গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

গত সোমবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে ঈদপরবর্তী মতবিনিময়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, পালিয়ে গেলে ধরা তো কঠিন। সময় লাগে। তবে সরকার এ ব্যাপারে সিরিয়াস।

তাকে খুঁজে বের করতে চেষ্টার কোনো ত্রুটি নেই জানিয়ে তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে খুব সিরিয়াস। হয়তো শুনবেন খুব শিগগির ধরা পড়েছে সে এবং তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

কোন মন্তব্য নেই