ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য
গ্রেফতারের পর এবার বরখাস্ত চবি’র কর্মচারী নিবারণ বড়ুয়া

1
ব্রেকিং নিউজ
  •                 
.

ফেসবুকে বির্তকিত মন্তব্য করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে সম্প্রতি গ্রেফতার হওয়া চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী নিবারণ বড়ুয়াকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

আজ বুধবার (১২ জুন) দুপুরে কর্মচারী বিধিমালা অনুযায়ী তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব শাখায় কর্মরত ছিলেন।

এর আগে গত ১১ জুন সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে হাটহাজারী থানা পুলিশ তাকে আটক করেছিল।

আইসিটি আইনে দায়েরকৃত মামলায় তাকে আটক করা হয় বলে জানায় পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চবি’র ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কে এম নূর আহমদ বলেন, কর্মচারী বিধিমালা অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী গ্রেফতার হলে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করতে হয়। ‘তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী নিবারণ বড়ুয়া ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগে আইসিটি মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন। তাই তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।’

জানাগেছে, গত ২৯ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা ও বঙ্গবন্ধু পরিষদ চবি শাখার সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান বাদী হয়ে হাটহাজারী থানায় ডিজিটাল তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের করেন। এতে নিবারণ বড়ুয়াকে একমাত্র আসামি করা হয়।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ২২ মে নিবারণ বড়ুয়া ফেসবুকে ‘অবশেষে জায়নামায কাত হয়ে পড়ে গেল’ লিখে একটি স্ট্যাটাস দেন।

এতে বাদী মশিউর রহমানের ধর্মীয় অনূভূতিতে আঘাত হানে বলে মামলায় উল্লেখ করেন তিনি।

এ বিষয়ে মামলার বাদী মশিউর রহমান বলেন, ‘ইসলাম ধর্মের একটি পবিত্র জিনিস হলো জায়নামাজ। এটির ওপর নামাজ আদায় করা হয়। ফলে নিবারণ বড়ুয়ার ওই স্ট্যাটাস ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে বলে একজন মুসলিম হিসেবে আমি মনে করি। সে প্রেক্ষিতে আমি মামলা করেছি।

প্রথম মন্তব্য