আষাঢের প্রথম দিনে একঘন্টার বৃষ্টিতে ডুবে গেছে নগরী

3
.

আষাঢের প্রথম দিনে বন্দর নগরী চট্টগ্রামে একঘন্টার টানা বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে জনপথ। ফলে নগরজুড়ে ব্যাপক জলবদ্ধার সৃষ্টি হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুরে সোয়া একঘন্টার বৃষ্টিতে নগরীর মুরাদপুর, বাকলিয়া, ষোলশহর হালিশহর, সিএমবি কলোনী, শুলকবহর, চকবাজার সহ শহরের বিভিন্ন স্থানে হাঁটু সমান পানিতে ডুবে যায় এবং এসব এলাকায় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দিনভর চরম দুর্ভেোগে পড়ে নগরবাসী।

.

শুধু সড়কে নয় এবারের বৃষ্টিতে আকতারুজ্জামান ফ্লাইওভারের বিভিন্ন অংশেও পানিতে ডুবে গেছে।

নগরীর দুই নম্বর গেইট এলাকার ব্যবসায়ী আব্দুর সবুর জানান, বর্ষার শুরুতে সামান্য বৃষ্টিতে রাস্তাঘাট ডুবে একাকার হয়ে গেছে। মানুষজন চলাফেরা করতে পারছে না। গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আমাদের চট্টগ্রামবাসীর এই দুঃখ শেষ হচ্ছে না। প্রধানমন্ত্রী জলবদ্ধতার জন্য হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে তবুও কেন পানিতে ভাসছি আমরা সাধারণ মানুষ।

.

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শফিকুল মন্নান সিদ্দিকী বলেন, আমাদের দায়িত্ব ৩ ফুট পর্যন্ত নালা পরিষ্কার করা। তা আমরা করেছি। এর বাইরে যে বড় নালা গুলো আছে তা সিডিএর দায়্ত্বি।

.

সিডিএ প্রধান প্রকৌশলী কাজি হাসান বিন সান জানান, বৃষ্টি হলে সড়কের উপর পানি জমে থাকার প্রধান কারণ হলো সড়কের পাশে নালা গুলো পরিষ্কার না করার কারণে। আমাদের দায়িত্ব খালগুলো পরিস্কার করা। তা আমরা করেছি। কিন্তু নালা পরিষ্কার করা সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব।

3 মন্তব্য