তীব্র গরমে শরীর ঠান্ডা রাখতে খান এই সব খাবার

0
.

গরম কাল মানেই চুটিয়ে আম, জাম, কাঁঠালের সময়। রসালো ফলের গন্ধে আর স্বাদে মাতোয়ারা এই ঋতু। তবে গরমের ফল শুধু সুস্বাদুই নয়, খুব উপকারীও। এই ফল গুলি খেলে গরমে শরীরের জল শুকিয়ে যাবে না ।

গরমে আমাদের ক্লান্তি কাটাতে তরমুজের বিকল্প নেই। তরমুজের রসে ভিটামিন এ, সি, বি২, বি৬, ই এবং ভিটামিন সি, ছাড়াও পটাশিোম, ম্যাগনেশিয়াম, বিটা ক্যারোটিন, ইত্যাদি থাকলেও, ক্যালোরির মাত্রা কম।

শসা পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি সবজি। শশার মধ্যে রয়েছে ভিটামিন কে, ভিটামিন বি, কপার, পটাশিয়াম, ভিটামিন সি, ম্যাঙ্গানিজ।

টমেটোতে রয়েছে ৯৪ দশমিক পাঁচ ভাগ জল। এছাড়া এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’, লাইকোপেন, ক্যারোটিন, রিবোফ্লোবিন, ক্যালসিয়াম ও আইরন থাকে।

দই খেতে যেমন সুস্বাদু তেমন স্বাস্থ্যের পক্ষেও অত্যন্ত উপকারী।

টকটকে লাল রঙের এই লোভনীয় ফলটি দেখতে যেমন সুন্দর স্বাদেও তেমন অতুলনীয়। শুধু রূপ আর স্বাদই না, এর আছে বহুগুণ। স্ট্রবেরীতে আছে প্রচুর পুষ্টি উপাদান যা শরীরের নানান রোগবালাই দূর করে আর শরীরকে রাখে সুস্থ।

কারণ সূর্যের তাপ শরীরের ভিটামিন শুষে নেয়। এই ভিটামিন পূরণ করতে লেবুর শরবত খুবই উপকারী। তাছাড়া প্রচণ্ড গরমে এ শরবত শরীরকে সহজেই ঠাণ্ডা করে।

কলা সারা বছর পাওয়া যায়। তবে গ্রীষ্মকালীন ফল হিসেবে বেশ উপযোগী একটি ফল। কাঁচা-পাকা দুটোই খাওয়া যায়। অতিরিক্ত ঘামে শরীর থেকে যে তরল পদার্থ বের হয়ে যায়, তা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে পটাশিয়াম। এ উপাদানটি কলার মধ্যে রয়েছে, তাই গরমের সময় কলা খান নিয়মিত।

কোন মন্তব্য নেই