সানস্ক্রিন তো কেনেন, জানেন কোন সানস্ক্রিন আপনার ত্বকের জন্য আদর্শ ? রইল গাইডলাইন–

0
.

গরমকালে বাড়ির বাইরে বেরনো মানেই সানস্ক্রিন মাস্ট! কিন্তু কেনার আগে মাথা ঘামাই না! এখানেই বড় ভুলটা করে ফেলি! দোকানে গিয়ে যা হোক একটা সানস্ক্রিন কিনে নিলেই চলবে না! আগে জানতে হবে, আপনার জন্য কোন সানস্ক্রিনটা প্রয়োজন। মাথায় রাখবেন, ভুল সানস্ক্রিন লাগালে ত্বকের মারাত্বক ক্ষতি হয়। কীভাবে বাছবেন সঠিক সানস্ক্রিন ? রইল গাইডলাইন

সানসক্রিন আসলে এসপিএফ (সান প্রোটেকশন ফর্মুলা)-সমৃদ্ধ প্রসাধনী। ক্রিম ও ওয়াটার বেসড, দু ধরণের হয়। এগুলো কাজ করে পাতলা আবরণের মতো। ফলে, সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি বা ইউভি-রে সরাসরি ত্বকের কোনও ক্ষতি কতে পারে ন।ইউভিএ (UVA) এবং ইউভিবি (UVB)- এই দুটো মাত্রা দেখে বাছতে হয় সানস্ক্রিন।ইউভিএ-এর A= এজিংইউভিবি-র B= বার্নিং

সকালে ত্বকে সানস্ক্রিন মেখে বেরলেন। কিন্তু, একটা নির্দিষ্ট সময়ের পরেই, ত্বকে কালচে ছোপ! এবার, কী করে জানবেন, আপনার সানস্ক্রিন কতক্ষণ কাজ করবে? রয়েছে একটা সহজ ফর্মুলা–এসপিএফ নম্বর x প্রোটেকশন ছাড়া পু্ড়তে কত সময় লাগবে= প্রোটেকশন কতক্ষণ কাজ করবেযেমন ধরুন, এসপিএফ (SPF) ১৫x১০ মিনিট= আপনার ক্রিমটি ১৫০ মিনিট কাজ করবে।

সকালে ত্বকে সানস্ক্রিন মেখে বেরলেন। কিন্তু, একটা নির্দিষ্ট সময়ের পরেই, ত্বকে কালচে ছোপ! এবার, কী করে জানবেন, আপনার সানস্ক্রিন কতক্ষণ কাজ করবে? রয়েছে একটা সহজ ফর্মুলা–এসপিএফ নম্বর x প্রোটেকশন ছাড়া পু্ড়তে কত সময় লাগবে= প্রোটেকশন কতক্ষণ কাজ করবেযেমন ধরুন, এসপিএফ (SPF) ১৫x১০ মিনিট= আপনার ক্রিমটি ১৫০ মিনিট কাজ করবে।এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, ত্বক কতক্ষণ রোদ সহ্য করতে পারবে বা কত সময় পর ত্বক পুড়তে শুরু করে, সেটা কিন্তু প্রত্যেকের ক্ষেত্রে আলাদা হয়। তবে, সাধারণত চড়া রোদে ১০ মিনিট থাকার পরেই এই সমস্যা মাথাচাড়া দেয়।

ইউভিএ (UVA) থেকে ট্যান পড়ে। সেইজন্য ক্রিম এর মাত্রা অন্তত ৩-৪ থাকা প্রয়োজন। কিন্তু এটি প্যাকেটের গায়ে সংখ্যায় লেখা থাকে না। তারা চিহ্নে দেওয়া থাকে। পাঁচটা স্টার পারফেক্ট।

ইউভিএ (UVA) থেকে ট্যান পড়ে। সেইজন্য ক্রিম এর মাত্রা অন্তত ৩-৪ থাকা প্রয়োজন। কিন্তু এটি প্যাকেটের গায়ে সংখ্যায় লেখা থাকে না। তারা চিহ্নে দেওয়া থাকে। পাঁচটা স্টার পারফেক্ট।

কোন মন্তব্য নেই