বাজারে আম এসে গিয়েছে ! রইল দেশের নানা প্রান্তের বিখ্যাত কিছু আমের রেসিপি–

0
.

শুধু ভাল স্বাদের জন্যই নয়, বাঙালির কাছে আম্রপ্রেম একটা উৎসব! গরমে আমের রসে সাঁতার কাটেন না, এমন বাঙালি খুঁজে পাওয়া দুষ্কর! তবে, শুধু বাংলা নয়, গোটা দেশই মাতে আমের উত্তেজনায়! রইল ভারতের নানা প্রান্তের আমের জনপ্রিয় কিছু রেসিপি

অসমের আমের টক–বানাতে লাগবে ২টো কাঁচা আম, সামান্য সাদা তেল ও সর্ষের দানা, ২-৩ টে তেজপাতা, ২টো শুকনো লঙ্কা, স্বাদমতো নুন, অর্ধেক কাপ জল, পরিমাণমতো হলুদগুঁড়ো।প্রথমে আমের খোসা ছাড়িয়ে লম্বা করে কেটে নিন। কড়াইয়ে সামান্য তেল গরম করে তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা, সর্ষের দানা ফোড়ন দিন। অল্প নাড়াচাড়া করে, আমের টুকরো, নুন, হলুদগুঁড়ো আর জল মিশিয়ে ঢাকনা এঁটে দিন। খেয়াল রাখবেন, আমের টুকরোগুলো যেন আস্ত থাকে, ভেঙে না যায়। মিশ্রণ থকথকে হয়ে এলে চিনি মিশিয়ে, মিনিট পাঁচেক আঁচে রেখে নামিয়ে নিন।

কর্নাটকের মাম্বালা গজ্জুবানাতে লাগবে ৮টা আম, পরিমাণমতো গুড়, স্বাদমতো নুন, প্রয়োজনমতো কাঁচা লঙ্কা, শুকনো লঙ্কা, কারি পাতা, সর্ষে দানাখোসা ছাড়িয়ে, আমের শাঁস আলাদা করে একটা কাপড়ে রেখে রোদে শুকাতে দিন। প্রতিদিন নতুন করে শাঁসের আস্তরণ দিতে থাকুন। এরকম ৫দিন করতে হবে। দেখবেন, আম শুকিয়ে মণ্ডর আকার নিয়েছে। একেই বলে মাম্বালা। পছন্দ মতো আকারে কেটে নিয়ে গুড় দিয়ে জ্বাল দিন। মিশ্রণে মেশান সমান্য নুন, শুকনো লঙ্কা, কারি পাতা আর সর্ষে দানা।

ওড়িশার আম্বা খাট্টাবানাতে লাগবে ২টো কাঁচা আম, অর্ধেক চা চামচ নুন, ১ চা চামচ সাদা তেল, ১ টেবিল চামচ আদা কুচি, ১ টেবিল চামচ পাঁচ ফোড়ন, ১ টেবিল চামচ জিরে বাটা, অর্ধেক কাপ গুড়, ২টো শুকনো লঙ্কা, কয়েকটা কারি পাতাপ্রথমে, কড়াইয়ে তেল গরম করে পাঁচ ফোড়ন, কারি পাতা, শুকনো লঙ্কা ফোড়ন দিন। আদা কুচি আর আমের টুকরো মেশান। আম নরম হয়ে এলে গুড় আর নুন মিশিয়ে ভাল করে নাড়াচাড়া করুন। পরিমাণমতো জল মিশিয়ে ঢাকনা এঁটে দিন। কম আঁচে মিশ্রণ ফুটতে দিন যতক্ষণ না গাঢ় হচ্ছে।

রাজস্থানের আম কা মুরব্বাবানাতে লাগবে ২টো কাঁচা আম, অর্ধেক কাপ চিনি, অর্ধেক লিটার জল, ২ টেবিলচামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো, স্বাদমতো নুন।প্রথমে আম কুড়ে নিন। জল আর চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে ফুটিয়ে সিরা তৈরি করুন। এরমধ্যে আম কোড়া আর লাল লঙ্কার গুঁড়ো মিশিয়ে আঁচ থেকে নামিয়ে নিন। মিশ্রণ স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এলে নুন মিশিয়ে, এয়ারটাইট বক্স-এ ভরে রেখে দিন। অনেকদিন পর্যন্ত স্বাদ ঠিক থাকে।

কোন মন্তব্য নেই