শ্যাম্পু করার সময়ে যা খেয়াল রাখা দরকার

0
.

ধুলা-ময়লা ও দূষণের জন্য চুল ঠিক রাখার সমস্যায় এখন প্রায় সকলেই ভূগছেন। এক দিন অন্তর শ্যাম্পু না করলেই চুলে চিটচিটে ভাব। আবার শ্যাম্পুর মধ্যে থাকা কেমিক্যাল চুলের ক্ষতি করেই চলেছে ক্রমাগত। তার উপর রয়েছে আমাদের অবহেলা। চুল ঠিক রাখতে হলে শ্যাম্পু করার ব্যাপারে কিছুটা সতর্কতা রাখতেই হবে।

জেনে নিন শ্যাম্পু করার সময়ে কোন ভুলগুলো এড়িয়ে চলতে হবে।

১। ভুল শ্যাম্পু: বেশির ভাগ সময়ই শ্যাম্পু কেনার সময় আমরা বিশেষ ভাবি না। নিজের চুলের ধরন, কী সমস্যা রয়েছে, তার কী প্রয়োজন তা না ভেবে কোনও ব্র্যান্ড পছন্দ বলেই কিনে নেন। অনেক সময় আবার পছন্দের তারকা ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর বলেও সেই অ্যাড দেখে আমরা শ্যাম্পু কিনে নিই। এটা সবচেয়ে বড় ভুল। শ্যাম্পু কেনার আগে নিজের চুলের ধরন, প্রয়োজনীয়তা বুঝুন।

২। কেমিক্যাল: বাজারে চলতি অধিকাংশ শ্যাম্পুর মধ্যেই ক্ষতিকারক কেমিক্যাল থাকে। যা চুলের ক্ষতি করে। শ্যাম্পু কেনার সময় বোতলের গায়ে লেখা কম্পোজিশন দেখে নিন। হারবাল শ্যাম্পু ব্যবহার করা ভাল। বিশেষ করে যদি চুলে সমস্যা থাকে।

৩। অতিরিক্ত ধোয়া: চুলের গোড়া থেকে যে তেল ক্ষরণ হয় তা চুলের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। চুল বেশি ধুলে শুষ্ক হয়ে যায়। তাই সপ্তাহে ২/৩ দিনের বেশি শ্যাম্পু করবেন না।

৪। চুল নয়, তালু: শ্যাম্পুর আসল কাজ মাথার তালু পরিষ্কার করা। গোটা চুলে লাগানোর দরকার নেই। এতে চুল শুষ্ক হয়ে যায়। আমরা পুরো চুলে শ্যাম্পু লাগাই। এটা একেবারেই ভুল। শুধু মাথার তালুতে শ্যাম্পু লাগান। ধুলে চুল এমনিই পরিষ্কার হয়ে যাবে।

৫। কন্ডিশনার: যখনই আমরা শ্যাম্পু করি চুল আর্দ্রতা হারায়। তাই চুলের স্বাস্থ্য ধরে রাখতে প্রতি বারই কন্ডিশনিং করা প্রয়োজন। কিন্তু অনেক সময়ই সময় বাঁচাতে কন্ডিশনিং করি না আমরা। মনে রাখবেন মাত্র দু’মিনিট সময় লাগে কন্ডিশনিং করতে। সময় বাঁচাতে গিয়ে চুলের ক্ষতি করবেন না।

কোন মন্তব্য নেই