এই সময়ে সুস্থ থাকতে

0
.

গরমে সুস্থতার জন্য আমাদের প্রথমেই লক্ষ্য রাখতে হবে খাবারের দিকে:

পানি
সুস্থ-সুন্দর শরীর ও ত্বকের জন্য প্রয়োজনীয় উপাদানগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে পানি। এটি ত্বকের আর্দ্রতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। বিশেষ করে গরমের সময় সুস্বাস্থ্যের জন্য পানি পান করা একান্ত জরুরি। প্রতিদিন অন্তত দুই লিটার পানি পান করুন।

সরাসরি পানি পান করুন। পানীয়(বোতলজাত জুস, কোমল পানীয়) পান করা থেকে বিরত থাকুন।

প্রোটিন
প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণ মাছ, বাচ্চা মুরগীর মাংস, সয়াবিন, পনির, খাদ্যশস্য, মটর, কলাই, মসুর, দুধ, শিম রাখুন। রেড মিট শরীরের জন্য ভালো নয় আর গরমে এসব খাবার খেলে আরও অসস্তি হতে পারে, তাই গরমে রেড-মিট না খেলেই ভালো।

কার্বোহাইড্রেটস
লাল চাল, লাল আটা, চিনি এবং মধু কার্বোহাইড্রেটস বা শর্করার উৎস।

ভিটামিন
সুস্থ থাকতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সমৃদ্ধ ফল খেতে হবে। লেবু, কাঁচা আম, তরমুজ, পেঁপে, গাজর যত ইচ্ছা খেতে পারেন।

ফাইবার
ফাইবার বা আঁশ জাতীয় খাদ্য আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজন। লাউ, লাল চাল, লাল, আটা ফাইবারের বড় উৎস।

খাবারে নিয়মিত টাটকা সবজির সালাদ রাখবেন।
ঘামের মাধ্যমে যে তরল বের হয়ে যায়, তা পূরণের জন্য লেবুর শরবত, ডাবের পানি এবং চিনি ছাড়া ঘরে তৈরি তাজা ফলের জুস পান করুন।

বাইরের ভাজা খাবারকে তো একেবারেই না বলতে শিখুন এই গরমে।

গরমের বিরক্তিকর বিষয় হচ্ছে ঘাম
• অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা হলে গোসলের পরে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার মেশানো একমগ পানি গায়ে ঢালতে পারেন৷
• লেবুর রস প্রাকৃতিক ডিওডোরান্ট হিসেবে কাজ করে। এক চাচামচ লেবুর রস আর সম পরিমাণ বেকিং সোডা দিয়ে একটা মিশ্রণ বানিয়ে নিন৷ যে সব জায়গায় অতিরিক্ত ঘাম হয়, সেখানে এই মিশ্রণটি তুলো দিয়ে লাগিয়ে আধাঘণ্টা পরে ধুয়ে নিন৷

কোন মন্তব্য নেই