ম্যাচিং ম্যাচিং ভালোবাসা!

0
.

আজকাল বিভিন্ন উৎসবে আমরা দেখতে পাই ফ্যাশনে নতুন যোগ হয়েছে যুগল পোশাক। বিশেষ করে ভালোবাসা দিবসে এই পোশাকের বেশ চাহিদা থাকে।

কিন্তু বিশেষ দিবস ছাড়াও প্রিয় মানুষটার সঙ্গে আর কি কি ভাগ করে নেওয়া যায়, এটা নিয়ে ভাবতে হয়। আমরা এখন এসে যা ভাবছি, তা অনেক আগে থেকেই করে এসেছেন জাপানের সুওসি ও টমি সেকি দম্পতি।

দীর্ঘ ৩৮ বছর আগে এই দম্পতির পথ চলা শুরু হয়। আর তখন থেকে প্রতিটি দিন তারা একই ধরনের পোশাক পরেন! তাদের ভালোবাসারই প্রকাশ এই ম্যাচিং পোশাক।

তাদের সকালের নাস্তা বা কোথাও বেড়াতে যাওয়ার বহু ছবি ভাইরাল হয়েছে ইনসট্রাগ্রামে। আর তাদের ফলোয়ারের সংখ্যাও প্রায় এক মিলিয়ন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে দ্যা গার্ডিয়ান।

সুওসি ও টমি সেকি দম্পতি এরই মধ্যে ফ্যাশন আইকন হিসেবে সবার কাছে পরিচিত । জীবনের ৬০ টির বেশি বসন্ত পেরিয়ে আজও সবার আগ্রহ ও ভালোবাসায় সিক্ত এই জুটি।

তবে পোশাকের বিষয়ে টমি বলেন, আমাদের পোশাকগুলো মোটেই খুব দামী নয়। খুব সাধারণ পোশাক আমরা সব সময় ব্যবহার করি। আর ডিজাইনগুলোও আমাদের নিজেদের করা। এগুলো চাইলে সবাই সাধ্যের মধ্যেই কিনতে পারে। এজন্য প্রয়োজন এক ধরনের পোশাক পরার ইচ্ছা। তবে প্রতিটি ঋতুর জন্য সঠিক পরিকল্পনা করে আমরা একই ধরনের আরামদায়ক পোশাক নির্ধারণ করি। পোশাক তৈরি ও ব্যবহারের সময় দু’জনেরই পছন্দের সমান গুরুত্ব দিয়ে থাকি।

বন এবং পপ নামের দুই সন্তান রয়েছে এই সুখী দম্পতির। তারাও বাবা-মাকে সাহায্য করেন ছবি তুলে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করতে, আর সবার এই ভালোবাসাও উপভোগ করেন বন-পপ।

কোন মন্তব্য নেই