ভাতের বদলে কাওন

0
.

ইদানিং সচেতন জীবনযাত্রা শুরু করেছেন অনেকেই। ফিট ও ছিপছিপে থাকলে মন ভালো থাকে, বাড়ে কাজের প্রতিও অনুপ্রেরণা। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার যাত্রা শুরু করতে হলে প্রথমেই শর্করা জাতীয় খাবার খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে আনার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। সেক্ষেত্রে ভাতের বদলে কাওন হতে পারে চমৎকার সমাধান।

যেকোনো সুপারশপ কিংবা অনলাইন হেলথ বেজড শপগুলোতে কাওন পেয়ে যাবেন কোনো ঝামেলা ছাড়াই। চলুন জেনে নিই এটি তৈরি করার একদম সহজ পদ্ধতি-

পাত্রে কিছুটা কাওন নিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন চালের মতো করে। এতে করে কাওনের তেতো স্বাদ চলে যাবে।
এবার কাওন পাত্রে নিয়ে পরিমাণ মতো লবণ (এক কাপ কাউনে ১/৪ চা চামচ লবণ) মিশিয়ে পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন।
মাঝারি আঁচে রান্না করতে থাকুন।পানি শুকিয়ে এলে দশ-পনেরো মিনিটের জন্য জ্বাল কমিয়ে দিন। একটি কাঁটা চামচ দিয়ে ভর্তা করার মতো নেড়ে দিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেলো কাওনের ভাত।

এবার মাছ, মুরগির মাংস কিংবা সবজি দিয়ে পরিবেশন করুন।

স্বাস্থ্যগুণ
কাওন আমিষ ও আঁশে পরিপূর্ণ একটি খাবার। এতে আছে ভিটামিন, মিনারেল ও ম্যাঙ্গানিজ। এটি গ্লুটেন-মুক্ত ও দারুণ স্বাস্থ্যকর। গরম গরম পরিবেশন করতে পারেন লেবুর রস, অল্প একটু জলপাই তেল, লবণ ও গোলমরিচ দিয়ে। স্বাদে এটি অতুলনীয়, বাদামের মতন মচমচে।

নানা ধরনের সালাদ তৈরিতেও এর জুড়ি নেই।

কোন মন্তব্য নেই