নোয়াখালীতে স্বামীকে বেঁধে রেখে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ

3

জেলা প্রতিনিধি, নোয়াখালী:

.

নোয়াখালীর সদরের কালাদরাপ ইউনিয়নে ৮মাসের অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূ (৩২), কে গণর্ধষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৪জুলাই) দুপুরে ভিকটিমকে নোয়াখালী জেনারেল হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এরআগে বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে দক্ষিণ শুল্লকিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের স্বামীর দা’র কোপে সুলতান আহমদ নামের একজন আহত হয়েছে বলে তারা দাবি করেন।

ভিকটিমের পরিবারের অভিযোগ, প্রতিদিনের ন্যায় গত বুধবার কাজ শেষে তার স্বামী বাড়ীতে এসে অন্তঃস্বত্তা স্ত্রীর পাশে ঘুমিয়ে পড়ে।  রাত ৩টার দিকে পাশ্ববর্তী কালাদরাপ ইউনিয়নের বাসিন্দা সুলতান আহম্মদ (৪০) ও কামাল হোসেন (৩২)সহ ৭/৮ জনের একদল চোর তাদের ঘরে সিঁধ কেটে ভিতরে প্রবেশ করে।  এসময় তারা ঘরে থাকা অন্তস্বত্তা গৃহবধূর স্বামী আব্দুর রহিমকে পাশের কক্ষে বেঁধে রাখে। পরে তাদের মধ্যে কয়েকজন অন্তঃস্বত্তা গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।  পাশের কক্ষ থেকে বের হয়ে আব্দুর রহিম একটি দা নিয়ে তাদের ধাওয়া করে এবং সুলতান আহমদকে কোপ দিয়ে জখম করলে তারা সবাই পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে সুধারাম মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, প্রথমে তারা জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ বলেছিল। এখন তারা ধর্ষণের অভিযোগ করছে। ভিকটিম হাসপাতালে ভর্তি আছে, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তারা মামলা করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

3 মন্তব্য

  1. তীব্র নিন্দা ধিক্কার ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি
    একই সাথে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবী জানাচ্ছি।