ফটিকছড়িতে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

0
ব্রেকিং নিউজ
  •  

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

                     

       

.

জেলার ফটিকছড়ি উপজেলার  থেকে রূম্পা দাশ (২৮) নামের এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। নিহত গৃহবধু রূম্পা দাশ মানিকপুর গ্রামের সতীশ মহাজন চেয়ারম্যান বাড়ীর বিশ্বজিৎ দাশের স্ত্রী।

৪ জুলাই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার কাঞ্চননগর ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রাম পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে সকাল সাড়ে ১১টার সময় বাড়ীর পাশের পুকুরে গৃহবধু রূম্পা দাশের লাশ ভাসতে দেখে শশুর বাড়ীর লোকজন পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করেন।

পরিবারের লোকজন লাশ সৎকারের জন্য প্রস্তুতি নিলে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়। খবর পেয়ে বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বিগত ৬ বছর আগে চট্টগ্রামের বাশঁখালী উপজেলার মৃত বাবুল দাশের মেয়ে রূম্পা দাশের সাথে কাঞ্চননগর ইউপির মানিকপুর গ্রামের বিশ্বজিৎ দাশের বিয়ে হয়। তাদের ৪ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।
বিশ্বজিৎ দাশ দীর্ঘদিন থেকে মানসিক রোগী। এছাড়াও রূম্পা দাশও মৃগী রোগী।

নিহতের বড় ভাই রাজিব দাশ বলেন, আমার বোন মৃগী রোগী ছিলেন। কিভাবে মারা গেছেন কেউ দেখিনি। তারপরও পুলিশকে আমরা মৃত্যুর সঠিক রহস্য উদঘাটনের জন্য লাশ ময়না তদন্ত করতে বলেছি। ময়না তদন্তের আগে আপাতত আমরা কোন অভিযোগ করছি না।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) আরিফ বলেন, ঐ গৃহবধু আত্বহত্যা করেছে নাকি পানিতে পড়ে মৃত্যুবরন করেছে বলা মুশকিল। এই মৃত্যুর পেছনে অন্য কোন রহস্য লুখিয়ে আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিহতের পরিবার এই ঘটনায় লিখিত কোন অভিযোগ দেয়নি। তারপরও লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই