আইন পেশায় ৪৬ বছর পূর্তিতে শম্ভু নাথ নন্দীকে সংবর্ধনা

0
.

আইন পেশায় সুদীর্ঘ ৪৬ বছর পূর্তি এবং আইন পেশার পাশাপাশি শিক্ষা ও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য বিশিষ্ট আইনজীবী ও সমাজসেবক এডভোকেট শম্ভু নাথ নন্দীকে সংবর্ধিত করেছেন “আইনজীবী সুহৃদ পরিষদ” সংগঠন।

বুধবার ১০ই (জুলাই) আজ দুপুর ২টায় আইনজীবী ভবনে উক্ত সংগঠনের আহ্বায়ক এডভোকেট উদয় সংকর ধর এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ও আইনজীবী তুষার কান্তি বিশ্বাস সভাপতিত্বে সিনিয়র আইনজীবী উদয় শংকর ধরের পরিচালনায় আয়োজিত উক্ত সংবর্ধনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিল সদস্য এডভোকেট দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বার এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি এডভোকেট রেজাউল করিম রেজা মানবাধিকার সংগঠন বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন- বিএইচআরএফ- এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর অর্গানাইজিং এবং চট্টগ্রাম জেলা সভাপতি এডভোকেট এ.এম জিয়া হাবীব আহ্‌সান, চট্টগ্রাম বার এসোসিয়েশনের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি এডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটি প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট মোঃ জানে আলম।

আরো বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানটির সহ-আহ্বায়ক এডভোকেট শৈবাল সেন, এডভোকেট অর্পন ঘোষ, এডভোকেট স্বপন শীল, এডভোকেট নিত্যলাল খাস্তগীর, এডভোকেট অমল কুমার চক্রবর্তী, এডভোকেট অপূর্ব চরণ দাশ, সদস্য সচিব সিনিয়র আইনজীবী বাবুল সরকার, এডভোকেট শিশির ভট্টাচার্য্য এডভোকেট সৌমিত্র বিশ্বাস, এডভোকেট রতন বিশ্বাস, এডভোকেট উৎপল শীল, এডভোকেট মিলন দত্ত, এডভোকেট হরিশংকর ভট্টাচার্য্য, এডভোকেট দীপক চৌধুরী, বাবু সমীর পাল প্রমুখ।

উল্লেখ্য ‘এডভোকেট শম্ভু নাথ শুধু একজন সিনিয়র আইনজীবী, তিনি শিক্ষা, সমাজসেবা ও জনপ্রতিনিধি হিসেবেও সমাজ উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রাখেন। এডভোকেট শম্ভু নাথ নন্দী দক্ষিণ চট্টগ্রামের মুজাফরাবাদ গ্রামের একজন সম্ভ্রান্ত জমিদার ও দানবীর পরিবারের সন্তান। তাঁর পিতা স্বর্গীয় যশোদা কুমার নন্দীও একজন দানশীল সমাজসেবক ছিলেন। তার জন্ম চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থানাধীন মুজাফরাবাদ গ্রামে। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম জেলার কোতোয়ালী থানাধীন ১৩৭ নং দেওয়ানজী পুকুর লেইন এলাকায় বসবাস করেন। ছাত্রজীবনে ১৯৭৩ইং তে তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় হইতে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে এম.এ এবং ১৯৭২ সালে চট্টগ্রাম আইন কলেজ থেকে এলএল.বি. ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৭৮ ইংরেজীতে তিনি বাংলাদেশ হাইকোর্ট প্র্যাকটিস সনদ অর্জন করেন । তিনি অদ্যবধি সুদীর্ঘ ৪৬ বৎসর যাবত আইন পেশায় ও মানব কল্যাণে অসাধারণ অবদান রেখে চলেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ছাত্রাবস্থায় আইন পেশার পাশাপাশি তিনি ১৯৭৩ ইংরেজীতে পটিয়া থানার অন্তর্গত ১৭নং খরনা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে গ্রাম উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখেন । এরপর তিনি ১৯৮১ ইংরেজীতে ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী কমিটির নির্বাচিত সাংস্কৃতিক ও আপ্যায়ন সম্পাদক এবং ২০০০ ইং সালে তিনি চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে আইনজীবীদের কল্যাণে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ পরিচালনা করেন।  তিনি ১৯৯৬ ইং হতে ২০০১ ইংরেজী পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ কোর্টের সহকারী সরকারী আইন কর্মকর্তা (এ.পি.পি) এর দায়িত্বে ছিলেন। ২০০৯ ইংরেজীতে চট্টগ্রাম জেলা ‘আইনজীবী বিজয়া সম্মিলন পরিষদ’-এর একজন নির্বাচিত সভাপতি ছিলেন। তিনি পটিয়া থানার অন্তর্গত ঐতিহ্যবাহী ‘মুজফফরাবাদ যশোদা নগেন্দ্র নন্দী’ আবাসিক মহিলা ডিগ্রী কলেজ-এর ১৯৮৯ সনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং আজীবন দাতা সদস্য হন। তিনি চট্টগ্রাম জজ কোর্টের সিনিয়র ও লব্ধ প্রতিষ্ঠিত আইনজীবী স্বর্গীয় সুখেন্দু বিকাশ গুহ এর জামাতা হন ।

কোন মন্তব্য নেই