স্ত্রীর পরকীয়া সন্দেহে শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা, ঘাতক আটক

0
.

মিঠাপুকুরে জামাতার ধারালো অস্ত্রের আঘাতে শাশুড়ির মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত স্ত্রী হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন। উপজেলার শঠিবাড়ী বৈরাতী মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ঘাতক জামাতাকে আটক করেছে।

নিহত শাশুড়ি সিদ্দিকা বেগম (৫০) পীরগঞ্জ উপজেলার বারাইপাড়া গ্রামের মৃত আজগর আলীর স্ত্রী।

জানা গেছে, উপজেলার বড় হযরতপুর ইউনিয়নের নানকর ফতেপুর গ্রামের জাহেদুল ইসলাম (৩৫) তার স্ত্রী আরজিনা বেগমকে নিয়ে শঠিবাড়ী বৈরাতী মোড়ে ভাড়া বাসায় থেকে শ্রমিকের কাজ করতেন। স্ত্রী পরকীয়ায় লিপ্ত এমন ধারণা থেকে তাদের মধ্যে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। এর জেরে গত সোমবার (৫ আগস্ট) সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে জাহেদুল ইসলাম স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। এ সময় শাশুড়ি সিদ্দিকা বেগম মেয়েকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে তাকেও এলোপাথাড়ি কোপায় জাহেদুল।

মা ও মেয়ের চিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাশুড়ি সিদ্দিকা বেগমের মৃত্যু হয়। স্ত্রী আরজিনা বেগমের অবস্থাও গুরুতর।

মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, ঘাতক জামাতাকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) কমল চন্দ্র রায়। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই