ইতালি থেকে ঈদ করতে এসে ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেলেন প্রবাসী নারী

3
.

গত কয়েকদিনে রাজধানীতে মহামারির রূপ নিয়েছে ডেঙ্গু। ছোট শিশু থেকে বৃদ্ধ অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন ডেঙ্গু জ্বরে। সবার মধ্যে আতঙ্ক ডেঙ্গু নিয়ে।

ইতিপূর্বে দেশে বিভিন্ন সময় ডেঙ্গু রোগ দেখা গেলেও এবারের মতো ভয়াবহ ছিল না। এবার যেমন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তেমনি মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে। এবার সে খাতায় নাম লিখিয়েছেন হাফসা লিপি (৩৪) নামের এক প্রবাসী নারী।

স্বামী ও ফুটফুটে দুটি সন্তানসহ থাকতেন সুদূর ইতালিতে। আপনজনদের সাথে ঈদ করতে ছুটে এসেছিলেন দেশে। কয়েক দিন ঢাকায় থেকেই গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে যাবেন- এমনটাই ভেবেছিলেন ইতালি প্রবাসী নারী হাফসা লিপি। কিন্তু, মানুষ ভাবে এক, আর হয় আরেক। ঈদের আগেই গ্রামের বাড়ি ফিরলেন ঠিকই, তবে লাশ হয়ে। গোটা পরিবারের ঈদের আনন্দ মাটি করে ডেঙ্গু কেড়ে নিলো তার প্রাণ।

রবিবার (৪ আগস্ট) রাজধানীর আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হাফসা লিপি। মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) তাকে গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়।

জানা যায়, তিন সপ্তাহ আগে স্বামী-সন্তান নিয়ে দেশে বেড়াতে আসেন হাফসা। কলাবাগানে আত্মীয়ের বাসায় উঠেছিলেন তারা। সেখানেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন হাফসার স্বামী সর্দার আবদুল সাত্তার তরুণ (৩৬)। কয়েক দিন পর জ্বর হয় হাফসারও। কিন্তু হাসপাতালে না গিয়ে স্বামীর সাথে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার সকালে তাকে ভর্তি করা হয় আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে। এনএস-ওয়ান পরীক্ষায় ডেঙ্গু রোগের জীবানু পায় চিকিৎসকরা। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাতে হাসপাতালের আইসিইউতে তার মৃত্যু হয়।

পারিবারিক কবরস্থানে স্বজনদের পাশেই ঠাঁই হলো হাফসার। কিন্তু মা হারা হয়ে গেলো তার দুই সন্তান অলি (১২) ও আয়ান(৬)।

3 মন্তব্য