অপারেশন থিয়েটারে তরুণীকে ধর্ষণ চেষ্টা, হাসপাতালের মালিক আটক

4
.

ময়মনসিংহ নগরীর ব্রাহ্মপল্লী এলাকায় পদ্মা জেনারেল প্রাইভেট হাসপাতালে এক গারো মেয়েকে নার্স পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ক্লিনিকের ম্যানেজার সোহেল রানা আলম ও মালিক শেখ মজিবুর রহমান বাবুলের নামে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছে নির্যাতিতা ওই মেয়ে।

পুলিশ জানায়, ক্লিনিকে নার্স পদে চাকরির বিষয়ে পূর্বে কথা বলে গতকাল রোববার বিকেলে পদ্মা হাসপাতালে আসে চাকরি প্রত্যাশী ৫ মেয়ে। হাসপাতালের ম্যানেজার আলম গারো তরুণীকে ওটি রুমের কাজ দেখানোর কথা বলে ধর্ষণ করার জন্য চেষ্টা চালায়।

এসময় বাকি চার মেয়ে বিষয়টি বুঝতে পেরে তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ করে। পরে বিষয়টি আপোষ মীমাংসার চেষ্টা চালায় হাসপাতালের মালিক মজিবুর রহমান বাবুল। এ সুযোগে ধর্ষণ চেষ্টাকারী আলম পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে মালিক শেখ মজিবুর রহমানকে আটক করে।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় মূল আসামিকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করায় হাসপাতালের মালিককে আটক করা হয়েছে। মূল আসামিকে গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

4 মন্তব্য

  1. অন্ধকার জগতের অতি সামান্যই লোক সমাজে ফুটে উঠে। গোপনে এ রূপ কত না জানি জঘন্য ও ঘৃণ্য। জাতিগত ভাবেই বিবেকের সংশোধন করার পদক্ষেপ নেয়া জরুরী কর্তব্য।