‘জয় বাঙলা’ স্লোগান দিয়ে শহীদ জিয়া অডিটোরিয়ামের নাম ফলক ভেঙে দিয়েছে ছাত্রলীগ (ভিডিও)

8
.

‘জয় বাঙলা’ স্লোগানে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের শহীদ জিয়া অডিটোরিয়ামের নাম ফলক ভেঙে দিয়েছে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

পুরাতন নাম ফলকটি ভেঙে দিয়ে এর নতুন নামকরণ করা হয় ‘মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ অডিটোরিয়াম’। এরপর সংগঠনটির নেতা-কর্মীরা আনন্দ মিছিল করে। একই সঙ্গে এসময় তারা জয় বাঙলা, জয় বঙ্গবন্ধু, মৌলভীবাজারের মাটি ছাত্রলীগের ঘাঁটি, ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হামলার সময় জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আমিরুল হোসেন চৌধুরী আমিন, সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলমসহ জেলা ও কলেজ ছাত্রলীগ শাখা নেতৃবৃ্ন্দের উপস্থিতি দেখা গেছে।

ভাঙচুরের বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোন ব্যক্তির নামে অডিটোরিয়াম থাকবে এটা সাধারণ শিক্ষার্থীরা মেনে নেয়নি। যার জন্য সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে জেলা ছাত্রলীগ অডিটোরিয়ামের নাম ফলকটি ভেঙে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ অডিটোরিয়াম করে দিয়েছে।

মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. ফজলুল আলী বলেন, অডিটোরিয়ামের নাম ফলকটি কে বা কারা ভেঙেছে আমি তা জানি না। বিষয়টি প্রশাসন অবগত আছে। আমরা এ ব্যাপারে তদন্ত করে পদক্ষেপ নেব।

8 মন্তব্য

  1. বিএনপি যদি কোন দিন ক্ষমতায় আসে, সেদিন বিএনপির ক্ষমতার (৬) ছয় মাসের ভিতরে তাদের বঙ্গবন্ধুর নাম সহ তাদের আওয়ামী চৌদ্দগুষ্টির নাম নিশানা সংসদের মাধ্যমে আইন পাশ করে মুছে ফেলতে হবে বাংলার মাটিতে আওয়ামীলীগের সাইনবোর্ড না থাকে, তখন বুঝবে কত ধানে কত চাল।

  2. আলহামদুলিল্লাহ অনেক ভালো কাজ করেছে। যার জন্য বাংলাদেশের জন্ম হয়েছে, সেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পিছনে যে অসৎ মুখটি লুকিয়ে আছে তার নামে যেন বাংলাদেশের কোন স্মৃতিফলক না থাকে সেটাই বাংলার জনগণের দাবি। এর জন্য ছাত্রলীগের ভাইদের কে জানাই অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ।।

  3. শুধু এই অডিটোরিয়াম কেন বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যেখানে জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়া নামে কোন স্মৃতি ফলক দেখা যাবে, সেসব গুঁড়িয়ে দেওয়ার আহবান রইল ছাত্রলীগের ভাইদের প্রতি। কারণ ২০০২-০৬ সাল পর্যন্ত আমরা দেখেছি বাংলাদেশের জাতির জনকের নামে যত স্মৃতিস্তম্ভ হছিল সবকিছুই মুছে দিয়েছিল বিএনপি-জামায়াত জোট। সুতরাং এই নোংরা মানসিকতা দেখে যারা এই কাজের জন্ম দিয়েছে তাদের প্রতিও সেরকম বিচার করা হোক।

  4. কথায় আছে যেমন কর্ম তেমন ফল। বিএনপির শাসনামলে তারা বঙ্গবন্ধুর নাম দেওয়া অনেক স্থাপন ছিল ।যেখান থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে দিয়ে জিয়াউর রহমানের নাম বসেয়েছিল। এবং তারা যে ষড়যন্ত্র করেছিল বাংলাদেশ থেকে শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান মুছে দিতে তা আমরা কখনোই ভুলবো না।সুতরাং ছাত্রলীগ যে কাজটি করেছে তার জন্য তাদেরকে সাধুবাদ জানাই।

  5. এমনভাবে আপনারা জিয়ার নামফলক ভেঙ্গে দেওয়ার ঘটনা উপস্থাপন করছেন মনে হয় এই কাজটি আপনারা আপনাদের শাসন এগুলো কখনোই করেননি। কিন্তু মনে পড়ে সেই দিনগুলির কথা যখন আপনারা ক্ষমতায় আসার সাথে সাথেই বঙ্গবন্ধু নামে গড়া অনেক স্থাপনা উচ্ছেদ করে দিয়েছিলেন। এবং বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে সেখানে জিয়াউর রহমানের নাম বসিয়েছিলেন।