দুই তরুণ আটক
চট্টগ্রামের দেয়াং পাহাড়ে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

1
.

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলায় নির্জন পাহাড়ে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক কিশোরী। এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) পুলিশ স্থানীয় দুই তরুণ আটক করেছে।

ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে সিএমপির ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। আজ শনিবার তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হবে।

রাতে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর মাহমুদ পাঠক ডট নিউজকে এ ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নানার বাড়ীতে বেড়াতে এসে পাহাড়ে বেড়াতে গিয়ে অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণের অভিযোগে দুই তরুণকে আটক করেছে থানা পুলিশ। আটক দুইজন হলো- মো. নাঈম (২০) ও মো. রকি (২১) ।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টম্বর) বিকেলে দেয়াং পাহাড়ে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার শিকার অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী।

ধর্ষিতা বিশোরীর বাড়ী হাটহাজারী উপজেলায় বলে জানাগেছে।

রফিকুল ইসলাম নামে জুলধা গ্রামের এক বাসিন্দা ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেন, বৃহস্পতিবার হাটহাজারী থেকে মায়ের সঙ্গে কর্ণফুলী উপজেলার জুলধা গ্রামে নানার বাড়িতে বেড়াতে আসেন ধর্ষণের শিকার ছাত্রীসহ তিন বোন। বিকেলে নানার বাড়ি থেকে ছোট দুই বোনকে নিয়ে বাড়ীর কাছে দেয়াং পাহাড়ে বেড়াতে যায় ওই কিশোরী।

নির্জন পাহাড়ে তাদের দেখে প্রথমে নাঈম নামের এক তরুণ ওই কিশোরীকে যৌন হয়রানি করে। পরে রকি নামে আরেক তরুণ তাকে ধর্ষণ করে।

নানার বাড়িতে ফিরে ওই ছাত্রী বিষয়টি প্রথমে গোপন করলেও পরে রাতে ঘটনা বলে দেয়। ঘটনা জানার পর ওই ছাত্রীর নানা রাতে থানায় খবর দেন। সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ নাঈম ও রকিকে আটক করে।

ওসি জানান, ঘটনার শিকার ছাত্রীকে সিএমপির ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার (৭ সেপ্টম্বর) ঘটনার শিকার ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হবে।

থানায় মামলা দায়ের করা হচ্ছে। দুই তরুণকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে শনিবার আদালতে পাঠানো হবে।

প্রথম মন্তব্য