জিয়াউর রহমান আ.লীগের পুনর্জন্ম দিয়েছিলেন: বিএনপি

6
.

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগ শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে অবৈধ রাষ্ট্রপতি বলে; কিন্তু কেন অবৈধ রাষ্ট্রপতি বলে এর কোন ব্যাখ্যা দেন না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বিলুপ্ত হয়ে বাকশাল হয়েছিলো; কিন্তু জিয়াউর রহমানের সময় এই বাকশাল থেকে আওয়ামী লীগের জন্ম হয়েছিলো এবং তখন একটি আইন পাস হয়েছিলো ‘পলিটিকাল পার্টি রেজিলিউশন’ নামে সেখানে আওয়ামী লীগের একজন নেতা আবেদন করে বাকশাল থেকে আওয়ামী লীগে ফিরে এসেছিলেন। এটাতো জিয়াউর রহমানের সময় হয়েছিলো। জিয়াউর রহমান আওয়ামী লীগের পুনর্জন্ম দিয়েছিলেন।

আজ সোমবার বিকেলে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের ৪১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মহিলা দল আয়োজিত র‍্যালির পূর্বে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মহিলা দলের আহব্বায়ক আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতানা রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান প্রমুখ।

রিজভী বলেন, জিয়াউর রহমান অবৈধ নয়, কারণ বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করে সকল রাজনৈতিক দলকে রাজনীতি করার সুযোগ দিয়েছিলেন। তিনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন, রাতের আঁধারে ভোট ডাকাতির মধ্য দিয়ে নয়।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র যারা হত্যা করে তারা কি বৈধ? আজকে এই যে এতো সাংবাদিক, এতো সংবাদমাধ্যম এর জন্ম দিয়েছেন বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা জিয়াউর রহমান। এই সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে হত্যা করেছে। অপরদিকে জিয়াউর রহমান সকল রাজনৈতিক দলকে প্রাণখুলে কথা বলার সুযোগ দিয়েছেন।

6 মন্তব্য

  1. রিজভী সাহেব আসলে আপনার চাপার জোরটাই বেশি।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করে অবৈধভাবে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন।আ.লীগকে নিশ্চিহ্ন করে আ.লীগ এর ইতিহাস মুছে দিতে চেয়েছিল জিয়াউর রহমান।আর বিএনপির আবাল গুলো বলছে জিয়াউর রহমান নাকি আ.লীগের পুনর্জন্ম দিয়েছে

  2. জিয়া কিভাবে ক্ষমতায় এসেছিল তা আমরা সকলেই জানি।জিয়ার শাসনামল বিশ্লেষণ করলে ভেসে উঠে একজন সামরিক অফিসারের বন্দুকের নলে ক্ষমতা দখল, নিজেকে সেনাপ্রধান ঘোষণা, অবৈধ উপায়ে একই সাথে সেনাপ্রধান ও রাষ্ট্রপতি থাকা।জিয়াউর রহমান মূলত স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিদের মন্ত্রীত্ব দিয়ে তাদের পুনর্জন্ম দিয়েছিলেন।

  3. জিয়াউর রহমান আওয়ামী লীগের পুনঃজন্ম দেয়নি বরং আওয়ামী লীগের ধ্বংস করার জন্য খন্দকার মোশতাকের সাথে এক হয়ে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিল। আর বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ফলে জিয়াউর রহমান দেশের ক্ষমতায় জোরপূর্বক এসেছিল তা দেশের জনগণ ভালো করেই জানে।

  4. জিয়াউর রহমানের যদি আওয়ামী লীগকে পুনর্জন্ম দেওয়ার কোন ইচ্ছা থাকতো তাহলে তিনি বিএনপি নামক দলটি গঠন করতেন না। বরং বিএনপি গঠন করার জন্যই তিনি বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিলেন। তার শাসনামলে তিনি বঙ্গবন্ধু আওয়ামীলীগের নাম ধরাও পাপ বলে কঠিন নিষেধাজ্ঞা জারি করে দিয়েছিলেন।

  5. বাংলাদেশের জন্ম হয়েছে আওয়ামী লীগের হাত ধরে।বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে অবৈধভাবে জন্ম নেওয়া দল বিএনপি নাকি আওয়ামী লীগকে পুনর্জন্ম দিয়েছে??আরে ভাই আওয়ামী লীগ যদি দেশ স্বাধীন না করতো বিএনপি’র মত জন্ম হতে পারতো না। জিয়াউর রহমান অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে অবৈধ প্রেসিডেন্ট হতে পারতো না। যেই দলের হাতে দেশের জন্ম সেই দলকে নাকি জিয়ার পুনঃ জন্ম দিয়েছে ধরনের উদ্ভট কথাবার্তা বাদ দিয়ে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসুন।

  6. জিয়াউর রহমান আওয়ামী লীগের পূর্ণ জন্ম দিয়েছে এ ধরনের মজার মজার জোকস শুনতে বি এন পির সেরা মিথ্যাবাজ রিজভীর সাংবাদিক সম্মেলন দেখুন।যেই আওয়ামী লীগের হাত ধরে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে।সেই আওয়ামী লীগকে নাকি জিয়াউর রহমান পুনঃ জন্ম দিয়েছে।এই রিজভী হচ্ছে বিএনপি’র হাইব্রিড। বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তখন এই রিজভী ছিল ছাগলের 14 নম্বর বাচ্চা। বিএনপি এখন ক্ষমতায় নেই তাই এই পাগল ছাগল রিজভী বিএনপি বড় দায়িত্বে বসে থেকে উদ্ভট কথাবার্তা বলে বিএনপিকে ও দেশের মানুষের কাছে বিতর্কিত করছে।