প্রাইম মুভার ট্রেইলর ধর্মঘট স্থগিত

0
vlcsnap-00001
চট্টগ্রাম বন্দরের ফাইল ছবি।

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কন্টেইনার পরিবহণে নিয়োজিত প্রাইম মুভার ট্রেইল ধর্মঘট আপাততে স্থগিত করা হয়েছে। আজ শুক্রবার দুপুরে সিএমপি সদর দপ্তরে পুলিশ কমিশনারের সাথে প্রাইম মুভার ট্রেইলার মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ নেতাদের অনুষ্ঠিত বৈঠকে টানা ৫ দিনের চলমান ধর্মঘট স্থগিত করা হলো।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (জনসংযোগ) আনোয়ার হোসেন ধর্মঘট স্থগিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পুলিশ কমিশনার স্যার ধর্মঘট প্রত্যাহারের অনুরোধ জানালে তারা মেনে নিয়েছেন।

বেলা ২টা থেকে প্রাইম মুভার ট্রেইলর চালকরা কাজে যোগ দিয়ে বন্দর থেকে কন্টেইনার পরিবহণ শুরু করেছে বলে জানান মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ নেতারা। তারা জানায়, এ ধর্মঘট আগামি ৪ অক্টোবর পর্যন্ত প্রত্যাহার করা হয়েছে।

জানাগেছে, সিএমপি কমিশনারের বাসায় অনুষ্ঠিতব্য বৈঠকে কমিশনার ইকবাল বাহার সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন। এবং দাবী মানার ব্যাপারে মন্ত্রীর আশ্বাসের পর নেতারা ধর্মঘট স্থগিত করার ঘোষণা দেন।

উল্লেখ্য গত ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে বন্দরে কন্টেইনার পরিবহণে নিয়োজিত প্রাইম মুভার চালক মালিকরা দাউদকান্দি ও মেঘনা সেতুতে বসানো স্কেলে ৩৩ টনের বেশি ওজনের পণ্যবাহী যান গেলেই ২ হাজার টাকার জরিমানার এবং একটি প্রাইম মুভার্সে সর্বোচ্চ ৩৩টন পণ্য পরিবহনের সীমা বেঁধে দেয়, কিন্তু ১৪ চাকার একটি মুভার্সে কমপক্ষে ৫০টন পণ্য থাকে। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে দাউদকান্দি ও মেঘনা ব্রীজে কয়েক শত প্রাইম মুভার্সকে আটক রেখে হয়রানি ও চালক-শ্রমিকদেরকে মারধর করার প্রতিবাদে ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে লাগাতার ধর্মঘট শুরু করে।

পাঁচদিন অচলাবস্থার কারণে বন্দরে কন্টেইনার জট হয়ে ধারণ ক্ষমতার বাহিরে চলে যায়। অন্তত ২৮ হাজার কন্টেইনার আটকা পড়ে বন্দরে। এতে বন্দরে স্থবিরতা দেখা দেয়। এবং ব্যবসায়িদের দুইশ কোটি টাকার লোকসান হয়েছে বলে দাবী করা হয়।

এ পরিস্থিতিতে গতকাল চট্টগ্রামের নতুন যোগ দেয়া জেলা প্রশাসক দু’দফা বৈঠক করার পর কোন সিদ্ধান্তে আসতে না পারায় শুক্রবার এ উদ্যোগ নেন সিএমপি কমিশনার।

প্রাইম মুভার ট্রেইলার মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাইন উদ্দিন জানান,পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের আন্তরিকতায় বিশেষ শর্তে আগামী ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোন প্রাইম মুভার ট্রেইলারকে ৪২ টনের কম পরিবহন করলে স্কেলে জরিমানা দিতে হবে না এবং ৪২ টনের বেশি মালপরিবহন করলে ২ হাজার টাকা শুধু একটি স্কেলে জরিমানা দিতে হবে। এই রশিদ দিয়ে সকল স্কেলে আর ওজন না মাপার শর্তে আমরা আগামী ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ধর্মঘট স্থগিত করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন