হবিগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ: ১৩ মামলার আসামী নিহত

0
.

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম কুদরত আলী (৪০)।

পুলিশের দাবি, নিহত কুদরত ডাকাত দলের সদস্য। তার বিরুদ্ধে হবিগঞ্জের বিভিন্ন থানায় ১৩টি মামলা রয়েছে। কুদরত আলী হবিগঞ্জ সদর উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের দরিয়াপুর গ্রামের ওমর আলীর ছেলে।

আজ মঙ্গলবার ভোর রাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী পুরাসুন্ধা বাঁশ বাগান এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি মোজাম্মেল হক জানান, গোপন খবর পেয়ে ভোর রাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী পুরাসুন্ধা বাঁশ বাগান এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় কুদরত আলীসহ ১০/১২ জনের একদল ডাকাত পুলিশকে উদ্দেশ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান ডাকাত কুদরত।

বন্দুকযুদ্ধ চলাকালে হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) আবুল কালাম ও মোজাম্মেল হক এবং কনস্টেবল রনি ও জয়নুল হক আহত হন। তারা হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

ডাকাত কুদরতের বিরুদ্ধে হবিগঞ্জের বিভিন্ন থানায় ১৩টি মামলা রয়েছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে পাইপ গানসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জনান ওসি।

কোন মন্তব্য নেই