কক্সবাজার থেকে ইয়াবা নিয়ে ঢাকায় বিক্রি করতো সঙ্গীত শিল্পী সুবর্ণা রূপা

3
.

রাজধানীতে ইয়াবাসহ গ্রেফতার হয়েছেন কক্সবাজারের সংগীত শিল্পী সুবর্ণা রুপা ও তার সহযোগী মাদক ব্যবসায়ী রুবেল। তাদের কাছ থেকে ১০৭ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর খিলগাঁওয়ের তিলপাড়া এলাকায় তার বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়।

.

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের পরিদর্শক এ. কে. এম. কামরুল ইসলাম জানান, সুবর্ণা রুপার বাসায় ইয়াবা রয়েছে-এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে সেখানে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে বাসায় ১০৭ পিস ইয়াবা পাওয়ায় সুবর্ণা রুপাকে আটক করা হয়।

আটক সুর্বণা হক রুপা বিটিভির তালিকাভুক্ত শিল্পী। তিনি কক্সবাজার থেকে ইয়াবা এনে ঢাকায় বিক্রি করতেন বলে জানিয়েছে। এছাড়া তার বাসায় মাদক সেবনের ব্যবস্থা ছিল বলেও দাবি করেছে সংস্থাটি।

খিলগাঁও এলাকার তিলপাপাড়ার এক নম্বর ব্লকের ১০ নম্বর রোডের ৬০২/এ নম্বর বাড়ি থেকে রুপাকে আটক করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। এসময় তার আরেক সহযোগী রুবেলকে আটক করা হয়।

রুপার দাবি, এ পর্যন্ত তার নয়টি গানের অ্যালবাম বের হয়েছে। তাছাড়া বিভিন্ন টিভি চ্যানেলেও গান পরিবেশন করেন। ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে তিনি জড়িত নন বলে দাবি করেন।

রুপা জানান, তিনি কক্সবাজারে থাকেন। ডায়াবেটিকের রোগী। দুদিন আগে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এসেছেন। তবে তিলপাপাড়ার ওই বাসায় ভাড়া থাকার বিষয়ে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রমনা সার্কেলের পরিদর্শক এ কে এম কামরুল ইসলাম বলেন, ‘রুপার বাড়ি নোয়াখালী হলেও তার শ্বশুড়বাড়ি কক্সবাজার। তার বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া ছেলে-মেয়েও সেখানে থাকে। তার স্বামী সৌদি প্রবাসী। সুবর্ণা কক্সবাজার থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে রাজধানীর ওই বাসায় এনে বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে খুচরা ও পাইকারি বিক্রি করতেন।’

তার বাসায় ইয়াবা সেবনেরও ব্যবস্থা ছিল জানিয়ে কামরুল ইসলাম বলেন, ‘অভিযানে তার কাছ থেকে ১০৭ পিস ইয়াবা ও বাসা থেকে ইয়াবা সেবনের বেশ কিছু ফয়েল পেপার উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া ওই বাসার নিচ থেকে রুবেলকে একটি মোটরসাইকেলসহ আটক করা হয়।’ আটক দুজনের বিরুদ্ধে খিলগাঁও থানায় মাদক আইনে মামলা হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

3 মন্তব্য