দুই সন্তানসহ প্রেমিকের সাথে পালিয়ে গৃহবধূ নিপা ফিরে এসেছে

0
.

পরকিয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে দুই সন্তানকে নিয়ে প্রেমিকের সাথে পালিয়ে গিয়েছিল জেলার বোয়ালখালীর গৃহবধু ফাতেমা আক্তার নিপা। অথচ সন্তানসহ নিপাকে অপহরণ করা হয়েছে এমন অভিযোগে তোলপাড় পড়ে যায় প্রশাসনে।

অবশেষে এক সপ্তহ পালিয়ে থাকার পর ফিরে এসেছে বোয়ালখালীর কুয়েত প্রবাসী ফখরুদ্দিন রুবেলের স্ত্রী নিপা। পরে তাকে পুলিশের হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

এর আগে পরিবারের সন্দেহ ছিলো সন্তানসহ তাকে অপহরণ করা হয়েছে। ওই সন্দেহের জেরে তাদের উদ্ধারে নেমেছিলো পুলিশ। কিন্তু সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের তৎপরতায় ওই নারী সাতদিন পর ফিরে এসেছে।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকালে ওই নারী দুই সন্তান নিয়ে চট্টগ্রাম নগরীতে ফিরে আসার পর কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট তাদের হেফাজতে নেয়। এরপর তাদের জিডিমূলে নগরীর চান্দগাঁও থানায় হস্তান্তর করা হয়।

হেফাজতে পুলিশের কাছে ওই নারী জানিয়েছে তাকে অপহরণ করা হয়নি। তিনি স্বেচ্ছায় তার আট বছরের প্রেমিক সীতাকুণ্ডের ভাটিয়ারির বাসিন্দা দুবাই প্রবাসী বাবুর সাথে পালিয়ে গিয়েছিলো।

.

পুলিশ জানায়, তার ছেলে আদনান সাইদ অয়ন (৪) ও মেয়ে ফাহমিদা জাহান রিমিকে (২) সাথে নিয়ে প্রেমিক বাবুর সাথে ঢাকায় পালিয়ে গিয়েছিলো। নিপার বাবার বাড়ি এবং শ্বশুর বাড়ি বোয়ালখালী উপজেলায়।

জানা যায়, গত ১২ নভেম্বর চট্টগ্রাম নগরীর আমান বাজার থেকে সিএনজি অটো রিকশা নিয়ে বোয়ালখালী উপজেলার শাকপুরায় নিজ বাড়িতে যাওয়ার উদ্দ্যেশে রওনা হয়েছিলেন। অটোরিকশাটি কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় গেলে দুই সন্তানসহ উধাও হয়ে যান ওই গৃহবধু।

পরে তাদেরকে অপহরণ করা হয়েছে ভেবে গৃহবধুর মা নগরীর চান্দগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। জিডিতে তিনি উল্লেখ করেন কাপ্তাই রাস্তার মাথায় তিনি অটো রিকশা দাঁড় করিয়ে কাপড় কিনতে নামলে মাত্র দশমিনিটের মধ্যে সিএনজিসহ তার মেয়ে ও নাতনিরা উধাও হয়ে গেছে।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মঈনুল ইসলাম বলেন, দুই শিশু সন্তানসহ গৃহবধু উধাও হওয়ার ঘটনাটি বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যম ও পত্রিকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করলে চান্দগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরির উপর ভিত্তি করে মামলাটির তদন্তভার নেয় চট্টগ্রাম নগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

তিনি বলেন, অপহরণ ধরেই তদন্ত করতে গিয়ে বাস্তবে ঘটনার চিত্র উঠে আসে ভিন্ন। উধাও হওয়ার ঘটনাস্থলের বিভিন্ন স্থানের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ সংগ্রহ করে নিশ্চিত হয়েছি ওই গৃহবধূ অপহৃত হয়নি।

ঘটনাটি তদন্তে ইউনিটের বিভিন্ন সদস্যরা যখন ওই নারীকে উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে এবং তার প্রেমিক বাবুর সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করা হচ্ছিল তখন মঙ্গলবার সকালে সে দুই সন্তানসহ চট্টগ্রামে ফিরে আসে। পরে তাকে পুলিশ হেফাজতে নিলে সে স্বীকার করেন তার দুই সন্তানসহ তার প্রেমিকের সাথেই সে ঢাকায় পালিয়েছিলো।

পুলিশ জানায়, সাত বছর আগে বিয়ে হওয়ার এক বছর আগে থেকেই বাবুর সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল গৃহবধুর ফাতেমা আক্তার নিপা (২৫)র।

কোন মন্তব্য নেই