স্কুলছাত্রের শরীরে কেরসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

0
.

বরিশালে ৭ম শ্রেনীর এক ছাত্রের শরীরে কেরসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গুরুতর অবস্থায় তাকে শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় প্রেরন করেন।

এ ঘটনার জন্য দায়ীদের গ্রেফতার ও উপযুক্ত শাস্তি দাবী করেছেন ওই ছাত্রের স্বজনরা।

এদিকে তদন্ত শেষে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার চাঁদপাশা এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। দগ্ধ ছাত্রের নাম মো. মাহফুজ (১৩)। সে ওই এলাকার কাশেম ঢালীর ছেলে এবং স্থানীয় বকশীর চর দাখিল মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র।

স্বজনরা জানান, মোবাইল কেনা বাবদ ৬শ’ টাকা নিয়ে বিবাদের জের ধরে ঘটে এই ঘটনা। মাহফুজ স্থানীয় একটি দোকানে বসা ছিলো। এ সময় তার বন্ধু বাপ্পী তাকে ডেকে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছিলো তাদের আরেক বন্ধু তামিম। কথাবার্তার এক পর্যায়ে মাহফুজের গায়ে কেরসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। তার চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন পরিবারে খবর জানায়। তারা পৌঁছার আগেই তার শরীরের একাংশ পুড়ে যায়। পরে তারা তাকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও কঠোর শাস্তির দাবী জানিয়েছেন স্বজনরা।

চিকিৎসকরা জানান, তার শরীরের ২৩ ভাগ পুড়ে গেছে। একই সাথে পুড়েছে তার শ্বাসনালীর অংশ বিশেষ। এ অবস্থায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরনের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এরপরপরই তাকে ঢাকায় নিয়ে যায় স্বজনরা।

এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার।

কোন মন্তব্য নেই