বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান শেষে ফেরার পথে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

0
.

দিনাজপুরে বিজয় দিবসের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে রাতে বাড়ি ফেরার পথে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী।

এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর মা মামলা দায়ের করলেও ঘটনার ৫ দিনে কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

কোতোয়ালী থানায় দায়ের করা মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাড়ি ফিরছিল দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী। এসময় মঙ্গলার বাজার এলাকায় পৌঁছালে তিনজন তাকে জোরপূর্বক রাস্তা থেকে প্রায় ৩০০ গজ উত্তরে পাথারিয়া নামক স্থানে নিয়ে যায়।

এসময় স্কুলছাত্রীর মুখে ওড়না দিয়ে মুখ ও হাত-পা বেঁধে ধারাল অস্ত্র দিয়ে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করা হয়। পরে ওই স্কুলছাত্রী জ্ঞান হারালে ধর্ষণকারীরা রক্তাক্ত অবস্থায় মৃতভেবে পুকুরে ফেলে পালিয়ে যায়। জ্ঞান ফিরলে ওই ছাত্রী বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি জানায়।

রাতে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে রক্তক্ষরণ বন্ধ না হলে পরের দিন ১৭ ডিসেম্বর ওই স্কুলছাত্রীকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় ১৮ ডিসেম্বর রাতে স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে দিনাজপুর সদর উপজেলার সুন্দরা জুলকাপাড়া গ্রামের লাল মোহাম্মদের ছেলে মোকছেদুল ইসলাম টুকলু (৩১) ও অজ্ঞাতনামা দুজনসহ মোট তিনজনকে আসামি করে কোতোয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালী থানার ওসি (তদন্ত) বজলুর রশিদ জানান, এই ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মেয়েটি অসুস্থ হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। ভিকটিমের সাথে প্রাথমিকভাবে কথা হয়েছে এবং চিকিৎসকরাও জানিয়েছে মেয়েটিকে ধর্ষণের আলামত মিলেছে। এই ঘটনায় যারা জড়িত তাদেরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

কোন মন্তব্য নেই