সরকারের ফরমায়েশি সাজার রায় ও মেন্টাল টর্চারে হার্ট এ্যার্টাকে কোকো মারা যান-ডা. শাহাদাত

0
.

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডাঃ শাহাদাত হোসেন বলেছেন, আরাফাত রহমান কোকো অত্যন্ত বিনয়ী, প্রচার বিমূখ ও নিরহংকারী ব্যক্তি ছিলেন। তিনি একজন সাধারন মানুষের মতো সাদাসিধে জীবন যাপনে অভ্যস্ত ছিলেন। তিনি সফল ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন। বাংলাদেশ ক্রীকেট বোর্ডের উপদেষ্টা হিসেবে ক্রীকেটের উন্নয়নের জন্য যে কর্মসূচি শুরু করেছিলেন তিনি বর্তমানে তার সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রীকেট বোর্ড। ১/১১ সরকারের মেন্টাল টর্চার ও পরে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের মামলার জালে ফরমায়েশি সাজার রায়ে নানাবিধ অত্যাচারে তিনি হ্রদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন।

তিনি আজ শুক্রবার (১৪ আগষ্ট) সকালে আরাফাত রহমান কোকোর ৫১ তম জন্মদিন উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর কোকো স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয় সংলগ্ন জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলে উপস্থিত মুসল্লীদের উদ্দেশ্যে এ কথা বলেন।

দোয়া মাহফিলে শহীদ জিয়াউর রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোসহ মৃত্যু বরণকারী নেতৃবৃন্দের আত্বার মাগফেরাত কামনা করা হয়। মোনাজাতে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের আশু রোগ মুক্তি,দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ এহসানুল হক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর ও সিঃ সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান।

আবুল হাশেম বক্কর বলেন, কোকো জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর থেকে পরিবার নিয়ে মালয়েশিয়াতে চিকিৎসাধীন ছিলেন। একদিকে বিদেশে তিনি গুরুতর অসুস্থ ছিলেন, অন্যদিকে দেশে মা বেগম খালেদা জিয়ার উপর সরকারের অত্যাচার নির্যাতনের খবরে তিনি ছিলেন চরম দুশ্চিন্তাগ্রস্ত।

আবু সুফিয়ান বলেন, মঈনউদ্দীন ফখরুদ্দীনের ১/১১ সরকার কর্তৃক ২০০৭ সালের ৩ সেপ্টেম্বর কোকোকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করা হয়। রিমান্ডে নিয়ে শারিরিক ও মানসিকভাবে প্রচন্ড নির্যাতন করে তাকে পঙ্গু করে দেয়া হয়। নির্যাতনের ফলেই কোকোর হ্রদযন্ত্রে সমস্যা দেখা দেয়।

আরাফাত রহমান কোকো স্মৃতি সংসদ চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি হাসান রুবেল এবং সাধারণ সম্পাদক ও নগর ছাত্রদল নেতা এন মোহাম্মদ রিমনের সার্বিক পরিচালনায় এতে আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি সহ সভাপতি হারুন জামান, ইকবাল চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ কামরুল ইসলাম, সহ দপ্তর সম্পাদক মোঃ ইদ্রিস আলী, কোকো স্মৃতি সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আরঙ্গজেব খান সম্রাট, চট্টগ্রাম মহানগর কোকো সংসদের সহ সভাপতি মো নয়ন, মো নাজমুল হায়দার, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক এস এম ইউছুপ, মো হোসাইন, কোকো সংসদ চট্টগ্রাম কলেজ শাখার সভাপতি মো সাইফুল ইসলাম সায়েল, চকবাজার থানার সভাপতি মো সাইফুদ্দীন, কোকো সংসদ নগর শাখার যুগ্ম সম্পাদক শাহাদাত খান রাসেল,জানে আলম কুসুম, মো হেলাল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মো সোহাগ হোসাইন, মামুন পাটোয়ারী নীরব,প্রিন্টিং ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মো তৌহিদুল ইসলাম, চকবাজার থানার সাধারণ সম্পাদক মো রায়হান, নগর শাখার স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক মো মিরাজ, সহ অর্থ সম্পাদক মো রিদোয়ান, চট্টগ্রাম কলেজ শাখার সাধারণ সম্পাদক মো রেজাউল করিম, যুগ্ম সম্পাদক হামিদুল ইসলাম, মো জাহেদ রকি,সহ ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মো সিয়ামুল কবির, মো ওসামা, সহ সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক মো পারভেজ, সহ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মো সোহেল সিকদার, সদস্য মো ইমন, নাঈম ইসলাম প্রমুখ।

কোন মন্তব্য নেই