পটিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় প্রবাস ফেরত যুবক খুন

0
.

জায়গা জমির বিরোধের জের ধরে পটিয়ায় মো. এরশাদ আলম (৩৬) নামে এক প্রবাসী যুবককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। আজ রবিবার (১৬ মে) রাত পৌনে ৯টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। এর আগে একঘন্টা আগে রাত পৌনে ৮টায় পটিয়ার কুসুমপুরা ইউনিয়নের গোরনখাইন ফকিরা মসজিদ বাজার এলাকায় প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা এরশাদ আলম ও তার বড় ভাই মো. নাসের (৫০) এর উপর হামলা চালায়।

আহত মো. নাসেরকে গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একই এলাকার আব্দুল আলীম, আব্দুল রহিম ও আব্দুল নূর নামে তিন ব্যক্তি তাদেরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। তারা তিনজনই ফকির মসজিদ বাজারের হোসেন স্টোরের মালিকের ছেলে।

পটিয়া থানার পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, জায়গা নিয়ে দুপক্ষের বিরোধে এ হামলার ঘটেছে। বর্তমানে ঘটনাস্থলে আমাদের ফোর্স মোতায়ন আছে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক। এ ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিহত এরশাদের পারিবাকি সূত্রে জানাগেছে, নিজেদের জায়গাতে ঘর বানাতে গেলে প্রতিপক্ষ রহিম গং তাদের বাধা দেয়। রবিবার ঘর তৈরী করতে বালু আনা হয়। কথা ছিল সোমবার রাজমিস্ত্রী কাজ শুরু করবে। কিন্তু রাতে পাশের জায়গার মালিক আব্দুর রহিম, আব্দুর নূর ও আব্দুল আজিজসহ একাধিক জন দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এরশাদ ও নাসেরকে আঘাত করেন। এরশাদের গলায় ছুরিকাঘাত করে গুরুত্বর আঘাত করে। আহত দুই ভাইকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে এরশাদ মারা যান।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শীলব্রত বড়ুয়া বলেন, পটিয়ায় হামলার ঘটনায় দুইজনকে আহত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে আনা হলে এরশাদ আলম নামে একজনকে মৃত ঘোষণা করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। আহত অন্যজনকে সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই