২৪ ঘন্টায় ভারতে করোনায় সবচেয়ে কম মৃত্যু ২ হাজার ৪শ ৪৫ জন

0
.

সাম্প্রতিক সময় ভারতে একদিনে করোনাভাইরাস শনাক্ত এক লাখ ১২ হাজারের বেশি, যা গত ৩রা এপ্রিলের (সোমবার) পর সর্বনিম্ন। এখন পর্যন্ত শনাক্ত ২ কোটি ৮৯ লাখের বেশি। আগের তুলনায় দেশটিতে মৃত্যুও কমেছে। একদিনে প্রাণ গেছে ২ হাজার ৪শ ৪৫ জনের, যা গত ২২শে এপ্রিলের পর সর্বনিম্ন।

মোট মৃত্যু ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৪৯ হাজার। ভারতের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট যুক্তরাজ্যের আলফা ভ্যারিয়েন্টের তুলনায় ৪০ শতাংশ বেশি সংক্রমণশীল। ১৩২ জনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়ার পর এমন তথ্য দিয়েছেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক।

যুক্তরাজ্যে আগামী সপ্তাহ থেকে ৩০ বছরের কমবয়সীদের টিকার আওতায় আনা হবে। অন্যদিকে ব্রাজিলে গত সপ্তাহের তুলনায় কমেছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৮৭৩ জনের ও শনাক্ত ৩৯ হাজার ৬৩৭। গত সপ্তাহে প্রতিদিন ১৮শ’র বেশি মৃত্যু হয় ব্রাজিলে।

প্রসঙ্গত, ভারতে এখন পর্যন্ত ২২ কোটি ৮০ লাখ মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে এনডিটিভির প্রতিবেদনে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, ভারতের মোট জনসংখ্যা ১৩৯ কোটির বেশি। সেখানে প্রতি ১০ লাখ মানুষের মধ্যে গড়ে দুই লাখ ৫৯ হাজার ৩৬৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। আর বাংলাদেশে জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৬০ লাখের বেশি। এখানে প্রতি ১০ লাখ মানুষের মধ্যে গড়ে ৩৬ হাজার ২২৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ জানুয়ারি ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, সংক্রমণের দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বে ভারতের অবস্থান দুই নম্বরে। ভারতের আগে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও পরে ব্রাজিল।

কোন মন্তব্য নেই