কর্ণফুলী গ্যাসের জিএমসহ দুই কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে দুদক

0
.

কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (কেজিডিসিএল) মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মো. সারওয়ার হোসেন ও সাবেক ব্যবস্থাপক মো. মজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে দুদক। অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ দেয়ার দায়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার পর দুদক গ্রেফতার করে।

আজ বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বেলা ১১টার দিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক ও মামলা বাদি মো. শরীফ উদ্দিন তাদের গ্রেফতার করেন। দুপুরে আদালতে হাজির করলে আদালত তাদের কারাগারে প্রেরণ করে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চট্টগ্রাম কোর্টের পরিদর্শক (প্রসিকিউশন) ইমরান হোসেন জানান, দুদক সম্মিলিত-১ এর কর্মকর্তা শরীফ উদ্দীন বাদি হয়ে মামলা করেছেন। ওই মামলায় তাদের দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। দুপুরে তাদের আদালতে তোলা হয়। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমান তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

এর আগে পাঁচ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। মামলার আসামিরা হলেন- কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক (ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিসেস) মো. সারওয়ার হোসেন, সাবেক মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, ট্রান্সমিশন ডিপার্টমেন্টের ব্যবস্থাপক মো. মজিবুর রহমান, টেকনিশিয়ান মো. দিদারুল আলম ও কর্মচারী (গ্রাহক সংকেত) মুজিবুর রহমান।

মামলা এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা অসৎ উদ্দেশ্যে একে অপরের যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরকারি আদেশ অমান্য করে আবাসিক খাতে নতুন ও বর্ধিত চুলায় গ্যাস সংযোগ বন্ধ থাকা অবস্থায় চট্টগ্রাম চান্দগাঁও থানা এলাকায় গ্যাস সংযোগ ও নতুন রাইজার নির্মাণের সুযোগ দিয়েছেন। এক্ষেত্রে তারা ভুয়া নাম ও ঠিকানা ব্যবহার করে ২২টি দ্বৈত চুলায় সংযোগ দিয়ে সরকারের আর্থিক ক্ষতি সাধন করেছেন বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই