ফুটবল খেলোয়ারেরা দেশের সুনাম বয়ে এনেছে: আ.জ.ম নাছির

0
.

সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের ব্যবস্থাপনায় এবং চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে চট্টগ্রাম এম.এ অজিজ স্টেডিয়ামে জেলা পর্যায়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের (অনুর্ধ্ব-১৭ বালক/বালিকা) উদ্বোধন করা হয়েছে।

আজ ১৭ জুন বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বেলুন উড়িয়ে এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) সাবেক মেয়র, সিজেকেএস’র সাধারণ সম্পাদক ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আ.জ.ম নাছির উদ্দিন।

জাতীয় পতাকাসহ অন্যান্য পতাকা উত্তোলন ও জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে খেলার আনুষ্টানিকতা শুরু হয়।

উদ্বোধনী দিনের খেলায় বিকেল ৩টা থেকে অনুষ্ঠিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (বালক-অনুর্ধ্ব-১৭) অংশ নেন চন্দনাইশ উপজেলা টিম বনাম সাতকানিয়া উপজেলা। নির্ধারিত সময়ে ১ম রাউন্ডের খেলায় চন্দনাইশ উপজেলা টিম ২-০ গোলে সাতকানিয়া উপজেলা টিমকে পরাজিত করে দ্বিতীয় রাউন্ডে উন্নীত হয়। অপরদিকে একই মাঠে বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে অনুষ্ঠিত বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (বালিক-অনুর্ধ্ব-১৭) অংশ নেন নগরীর কোতোয়ালী থানা টিম বনাম ডবলমুরিং থানা টিম। নির্ধারিত সময়ে ১ম রাউন্ডের খেলায় ডবলমুরিং থানা টিম ১-০ গোলে কোতোয়ালী থানা টিমকে পরাজিত করে দ্বিতীয় রাউন্ডে উন্নীত হয়। চট্টগ্রামের ১৫ উপজেলার ১৫টি বালক ও ১৫টি বালিকা দল করে মোট ৩০টি দল এবং চট্টগ্রাম মহানগর থেকে ৬টি বালক ও ৬টি বালিকা দল কওে মোট ১২টি দল এ খেলায় অংশগ্রহণ করছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এম.এম জাকারিয়ার সভাপতিত্বে ও সিজেকেএস’র নির্বাহী সদস্য কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া অফিসার ও ফুটবল খেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব মনোরঞ্জন দে।

এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার এস.এম রশিদুল হক, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) মো. বদিউল আলম, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদ, সিজেকেএস’র সহ-সভাপতি ও রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম এহেছানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, সিজেকেএস’র সহ-সভাপতি দিদারুল আলম চৌধুরী, সিজেকেএস’র সহ-সভাপতি এডভোকেট শাহীন আফতাবুর রহমান চৌধুরী, সাতকানিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও বনফুল গ্রæপের চেয়ারম্যান এম.এ মোতালেব সিআইপি, সিডিএফ সভাপতি শহিদুল ইসলাম, বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক নজরুল ইসলাম লেদু, সিজেকেএস’র যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য অহিদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন, নির্বাহী সদস্য মশিউর রহমান।

প্রধান অতিথি সাবেক মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম নাছির উদ্দিন বলেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব দু’জনই মহান ব্যক্তি। তাঁদের অবদানের কথা কখনো ভূলে যাওয়ার মত নয়। জাতির পিতার কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় সারাদেশে অনুষ্ঠিত ফুটবল টুর্নামেন্টের মাধ্যমে আমরা প্রচুর খেলোয়ার পেয়েছি। ফুটবলে আমরা কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও থানা/উপজেলা, জেলা, বিভাগ ও জাতীয় পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল খেলার মাধ্যমে খেলোয়ারেরা আমাদের দেশের সুনাম বয়ে এনেছে। এ খেলার মাধ্যমে যে সকল খেলোয়ার দলগুলো বিজয়ী হবে তারা নিঃসন্দেহে জাতীয় পর্যায়ে খেলার সুযোগ পাবে। যারা ভালো খেলবে, চ্যাম্পিয়ন হবে কিংবা রানার আপ হবে তাদের জন্য ভবিষ্যতে আরো অনেক সুযোগ আসবে। বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার প্রতি যে সম্মান তা আমরা এই ফুটবল টুর্নামেন্টের মাধ্যমে প্রকাশ করবো।

কোন মন্তব্য নেই