কোরবানি ঈদের দিন ফটিকছড়ি ও কর্ণফুলিতে পুকুরে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু

0
.

কোরবানির ঈদের দিন জেলার ফটিকছড়ি ও কর্ণফুলী থানা এলাকায় পুকুরে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ঈদ উপলক্ষে ফটিকছড়িতে নানার বাড়ি বেড়াতে গিয়ে পুকুরে ডুবে মারা যায় দুই জমজ ভাই।

জানাগেছে, জেলার ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভার পূর্ব সুয়াবিল ভাঙ্গাদিঘীরপাড় রফিক সিকদার বাড়ির ইউসুফের বাড়িতে আজ বুধবার এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত দুই ভাই মুহাম্মদ ও আহম্মদ স্থানীয় পূর্ব সুয়াবিল কার্পাসপাড়ার মোহাম্মদ তাহেরের সন্তান। তাদের দুজনের বয়স আড়াই বছর এবং দুই জমজ ভাই।

স্থানীয়রা জানায়, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে তারা নানার বাড়িতে বেড়াতে যায়। খেলতে গিয়ে সকলের অগোচরে বাড়ির পার্শ্বস্থ ডোবায় ডুবে যায়। স্বজনরা কোরবানির কার্যক্রম শেষে বাড়িতে ফেরার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে ছেলেদের খোঁজাখুঁজি করছিলেন। এমন সময় ডোবায় মৃত অবস্থায় শিশু দু’টির লাশ ভেসে উঠে।

এদিকে একই দিন কর্ণফুলী উপজেলায় পুকুরে ডুবে দুই বছরের এক এতিম শিশুর মৃত্যু হয়েছে। তার নাম মোহাম্মদ ফরহাদ।  বুধবার সকালের দিকে চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের হাজী আবদুর রহিম মেম্বার বাড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। দুই বছর আগে শিশুটির মা মারা যায়।

শিশুর চাচি খুরশিদা আক্তার জানান, সকাল বাড়ির লোকজন ঈদের নামাজ পড়তে যায়। ফরহাদ এসময় খেলতে গিয়ে পুকুরে পড়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে পানিতে ভাসতে দেখা যায়। জন্মের পর শিশুটির মা মারা যায়।

কোন মন্তব্য নেই