চট্টগ্রামে স্বর্ণ চোরাচালান মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

0
court----
ছবি: প্রতিকী

চট্টগ্রামে স্বর্ণ চোরাচালানের মামলার রায়ে আদালত এক ব্যাক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

সোমবার দুপুরে চট্টগ্রামের সিনিয়র স্পেশাল সেশন জজ মোহাম্মদ শাহ নূর এ রায় দিয়েছেন। রায়ে দন্ডিত ব্যাক্তির নাম আবদুল্লাহ আল আমিন। তিনি চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার বিনাজুরি গ্রামের কবির আহমদের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন দুবাই প্রবাসী ছিলেন।

চট্টগ্রাম মহানগর পিপি এডভোকেট মোহাম্মদ ফখরুদ্দিন চৌধুরী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ২০১৪ সালের ২১ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে (বিজি ০২১) করে দুবাই থেকে আসা যাত্রী আবদুল্লাহ আল আমিনকে সন্দেহজনক মনে হলে কাস্টমস কর্মকর্তারা তাকে আটক করেন। পরে তার শরীরের করে তিন কোটি টাকা দামের প্রায় সাত কেজি স্বর্ণ (৫৮টি স্বর্ণের বার) উদ্ধার করেন। এসময় তার পাসপোর্ট জব্দ করে তাকে পতেঙ্গা থানায় সোপর্দ করেন।

এ ঘটনায় শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের সহকারি রাজস্ব কর্মকর্তা ইমাম হোসেন বাদি হয়ে পতেঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ ২০১৫ সালের ৩১ জানুয়ারি আবদুল্লাহ আল আমিনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

একই বছরের ১৩ এপ্রিল আদালত আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরু করেন। মামলায় মোট ১১ জন সাক্ষীর মধ্যে ৯ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামির বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয় আদালত।

জানাগেছে, বিচার শুরুর আগে থেকে আসামি জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছে।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন