সীতাকুণ্ডে অপহরণের দুইমাস পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

0
Ctg Babsaye Faruq Sitakunda
সীতাকুণ্ডে অপহরণের পর ফারুক নামে এ ব্যবসায়িকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অপহরণের ২ মাস পর পাহাড় থেকে ফারুক (২৮) নামে স্ক্র্যাপ লোহা ব্যবসায়ীর গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ ফৌজদার হাট সলিমপুর পাহাড় থেকে অপহৃত ফারুকের লাশ উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় পুলিশ জামাল উদ্দিন নামে একজনকে আটক করেছে।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার এস আই ইকবাল হোসেন এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, ফৌজদার হাট উত্তর ছলিমপুর এলাকার বাসিন্দা ফারুক (২৮) শীপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের স্ক্র্যাপ লোহার ব্যবসা করতেন।

গত ২১ মার্চ সকালে তিনি নিজ বাড়ি থেকে ৬ লাখ টাকা নিয়ে ব্যবসার কাজে ভাটিয়ারী দিকে যাবার সময় অপহরণ হন। পরদিন ২২ মার্চ ফারুকের ছোট ভাই রাশেদ মিয়া এ ব্যাপারে থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা না নিয়ে জিডি এন্টি করেন।

অভিযোগে রাশেদ সন্দেহভাজন অপহরণকারী হিসেবে সুমন প্রকাশ সোহেল (৩২) পিতা মো.আলম, মোছাম্মদ শাহিন আক্তার (২২), স্বামী মো. সোহেলসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনের উল্লেখ করেন।

পরে পুলিশ অনুসন্ধান চালিয়ে সম্ভাব্য অপহরণকারী হিসেবে জামাল উদ্দিন নামে একজকে রোববার রাত দেড়টা দিকে আটক করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে ব্যবসায়ি ফারুককে হত্যা এবং লাশ গুমের বিবরণ দেয়।

তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক সোমবার সকালে সকালে সলিমপুর পাহাড় থেকে ফারুকের গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

এ ব্যাপারে জানার জন্য সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইফতেখার হাসানের মোবাইলে বার বার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন