সিলেটে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৭

1

সিলেটের বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের একপর্যায়ে বন্দুকের গুলিতে এক ছাত্রলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ৬-৭ জন।

সোমবার দুপুরে ছাত্রলীগের পল্লব ও পাভেল গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। আরো সংঘর্ষের আশঙ্কায় ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নিহত ছাত্রলীগ কর্মীর নাম খালেদ আহমদ লিটু (২৩)। তিনি ছাত্রলীগের পাভেল গ্রুপের কর্মী বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কয়েকদিন ধরেই কলেজে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ছাত্রলীগের পাভেল ও পল্লব গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। এরই মধ্যে সোমবার দুপুর ১২টার দিকে লিটু কলেজের ইংরেজি বিভাগের শ্রেণীকক্ষে এলে তার মাথায় গুলি করা হয়। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, খালেদ আহমদ লিটুর মাথায় গুলি লেগেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ দ্বারকেশ চন্দ্র নাথও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করছেন। তিনি জানান, নিহত লিটু কলেজের ছাত্র নয়। সে স্থানীয় একটি মোবাইলের দোকানের কর্মচারী। তবে সে ছাত্রলীগ করতো।

Advertisements

প্রথম মন্তব্য

একটি মন্তব্য দিন