নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণে বাংলাদেশী নিহত

0
.

বান্দরবানের মিয়ানমার সীমান্তে ১৬ ঘণ্টার ব্যবধানে স্থলমাইন বিস্ফোরণে এক বাংলাদেশী নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। একই ঘটনায় আহত হয়েছে এক রোহিঙ্গা নাগরিক।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে চাকঢালা সীমান্তের বড়ছনখোলা জিরো পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম হাসেম উল্লাহ (৪৮)। তিনি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরের আদর্শগ্রামের আবদুস সালামের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এক বাংলাদেশীসহ দুই রোহিঙ্গা নাগরিক মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সীমান্তের জিরো পয়েন্টে গেলে মিয়ানমার সেনাবাহিনী কর্তৃক মাটিতে পুতে রাখা স্থলমাইন বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় সামনে থাকা হাসেম উল্লাহ ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন। বিস্ফোরণের শব্দ শুনে অন্যান্য রোহিঙ্গারা ঘটনাস্থল থেকে কাদির হোসেনকে (৪৫) উদ্ধার করে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী ও ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার ফরিদুল আলম জানান- রাত সাড়ে ৮টায়ও বিস্ফোরণস্থলে হাসেম উল্লাহর দেহ পড়ে ছিলো। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা তাদের।

তবে চোখে আঘাতপ্রাপ্ত কাদির হোসেনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি মিয়ানমারের পালংগ্যাঝিরি গ্রামের মির আহমদের ছেলে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সরওয়ার কামাল বলেন, ওই ব্যক্তির দেহ পড়ে রয়েছে। আহত রোহিঙ্গাকে নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই