টাইমলাইনে, গুলশান জিম্মি উদ্ধার অভিযান

0

সকাল ৭ টা ৩০ মিনিটঃ রাতভর গুলশানের হোলি আর্টিজান রেস্টুরেন্ট সংলগ্ন এলাকা ঘিরে রাখার পর যৌথ সেনা, নৌ, পুলিশ, র‍্যাব এবং বিজিবির সমন্বয়ে যৌথ কমান্ডো দল গুলশানে অভিযানের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেয়।

অভিযানে অংশ নেয়া যৌথ কমান্ডো দল। ছবিঃ ফোকাস বাংলা
অভিযানে অংশ নেয়া যৌথ কমান্ডো দল। ছবিঃ ফোকাস বাংলা

৭ টা ৪৫ মিনিটঃ কমান্ডো বাহিনী অভিযান শুরু করে। অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত দলের সদস্যরা রেস্টুরেন্টের ভেতরে প্রবেশ করে। এমময় গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়।

৮ টা ১৫ মিনিটঃ রেস্টুরেন্ট থেকে প্রথম দফায় নারী ও শিশুসহ ৬ জনকে উদ্ধার করা হয়। একজনকে অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

অভিযান শেষ হয় সোয়া নয়টায়। ছবিঃ ফোকাস বাংলা
অভিযান শেষ হয় সোয়া নয়টায়। ছবিঃ ফোকাস বাংলা

৮ টা ৫৫ মিনিটঃ ভবনের নিয়ন্ত্রণ নেয় অভিযানকারীরা। গোয়েন্দা দল ভবনের ভেতর বিস্ফোরকের জন্য তল্লাশি শুরু করে। কিছুক্ষন পরই আলামত সংগ্রহের কাজ শুরু করে গোয়েন্দারা।

৯ টা ১৫ মিনিটঃ অভিযান শেষ। কমান্ডো অভিযানের মধ্য দিয়ে ঢাকার গুলশানের একটি রেস্টুরেন্টে প্রায় ১২ ঘণ্টার রক্তাক্ত জিম্মি সংকটের অবসান হয়।

সন্ত্রাসীদের গুলিতে রাতে দুজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হন। ছবিঃ ফোকাস বাংলা
সন্ত্রাসীদের গুলিতে রাতে দুজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হন। ছবিঃ ফোকাস বাংলা

৯ টা ৩০ মিনিটঃ গুলশান এলাকা ছেড়ে বেরিয়ে যান পুলিশ মহাপরিদর্শক।

১০ টাঃ ৪ জন বিদেশীসহ ১৩ জন জীবিত উদ্ধারের খবর জানানো হয়। রেস্টুরেন্টের ভেতরে অজ্ঞাত পাঁচজনের মৃতদেহ পাবার কথা পুলিশ জানায়।

Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন