নগর ছাত্রদলের সাবেক সা. সম্পাদক মো. অালী আর নেই

0
.

স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনের সফল সংগঠকের চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও নগর বিএনপির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে……রাজিউন)।

১৭ ডিসেম্বর রবিবার সন্ধ্যা ৭ টা ৩০ মিনিটে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে নগরীর মেহেদীবাগস্থ ন্যাশনাল হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৯ বছর। তি‌নি দীর্ঘ‌দিন ধরে ডায়‌বে‌টিস ও লিভা‌রের সমস্যায় ভু‌গছিলেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তান সহ অসংখ্যা গুণগ্রাহী দলীয় নেতাকর্মী রেখে গেছেন।

আজ সোমবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদানের জন্য মরহুমের লাশ রাখা হবে। বাদে জোহর জমিয়তুল ফালাহ্ জামে মসজিদ মাঠে মরহুমের নামাযের জানাযা অনুষ্ঠিত হইবে। জানাযা শেষে গরীবুল্লাহ শাহ্ মাজার কবর স্থানে মরহুমের দাফন সম্পন্ন করা হবে বলে বিএনপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ্য করা হয়েছে।

জাতীয়তাবাদী দল কেন্দ্রীয় ও মহানগর কমিটির নেতৃবৃন্দ এক যৌথ বিবৃতিতে সাবেক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ আলীর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমাবেদনা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, এরশাদ বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে সমস্ত গণতান্ত্রিক সংগ্রামে যে ব্যক্তিটি সকলকে উদ্বুদ্ধ করার প্রেরণা যুগিয়েছেন, তাঁর মৃত্যুর মধ্যদিয়ে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির চরম শুন্যতা সৃষ্টির পাশাপাশি ক্ষতির ক্ষেত্র তৈরী হয়েছে। ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে অদ্যাবধি প্রচার বিমুখ অথচ সকল কর্মের প্রেরণা সৃষ্টিকারী এই মেধাবী সংগঠকের শুন্যস্থান পুরণ করা কঠিন সংগ্রামের মত। মানুষ বাঁচে তার কর্মের মধ্যে-বয়সের মধ্যে নয়-এ প্রবাদকে সাক্ষী করে মোহাম্মদ আলী কর্মের যে প্রেক্ষাপট গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছিল, জাতীয়তাবাদী পরিবারের সকলের হৃদয়ের মধ্যে মোহাম্মদ আলী বেঁচে থাকবে আজীবন।

বিবৃতিদাতারা হলেন, জাতীয়তাবাদী দল জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মঞ্জুর মোর্শেদ খান, আবদুল্লাহ আল নোমান, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা গোলাম আকবর খন্দকার, বেগম রোজি কবির, সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম, কেন্দ্রীয় সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, বর্তমান সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর প্রমুখ।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন