নিশা দেশাই দু’দিনের সফরে আজ ঢাকায় আসছেন

0
nisha_desai_18583_1468039371
মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী মন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল। আজ ঢাকায় আসছেন।

গুলশান ক্যাফেতে সন্ত্রাসী হামলার পর আনুষ্ঠানিক দুদিনের সফরে আজ রবিবার ঢাকা আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী মন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল।

কূটনৈতিক সূত্র জানায়, চলতি মাসের শেষদিকে ঢাকায় আসার কথা ছিল সহকারী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্ট ও কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে তার এ সফর এগিয়ে আনা হয়েছে। এ সফরে তিনি স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ বাংলাদেশ সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।
ঢাকা ও ওয়াশিংটনের কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও তার বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশের নিরাপত্তা পরিস্থিতি, ক্যাফে হামলা তদন্তে সহায়তায় মার্কিন প্রস্তাব এবং মার্কিন দূতাবাস কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করবেন সহকারী মন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল।
বাংলাদেশের এই সংকট মুহূর্তে নিশা দেশাইর ঢাকা সফর নিয়ে সরকার ও রাজনৈতিক মহলে মিশ্র আলোচনার জন্ম দিয়েছে।
একটি কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, সফরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। সফরকালে গুলশানে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে আলোচনা প্রাধান্য পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গত ২৫ এপ্রিল ইউএসএইডের কর্মকর্তা জুলহাজ মান্নান হত্যার পর ৫ ও ৬ এপ্রিল বাংলাদেশ সফর করেন নিশা দেশাই।
গত ১ জুলাই রাজধানীর গুলশানের স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজানে অতর্কিত হামলা চালায় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। সেখানে আসা অতিথিদের জিম্মি করে রাখা হয়। পরে সেই রাতেই জিম্মিদের হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। নিহতদের মধ্যে ৯ জন ইতালীয়, ৭ জন জাপানি, একজন ভারতীয়, একজন মার্কিনি এবং দুজন বাংলাদেশি নাগরিক ছিলেন। পরের দিন সকালে কমান্ডো বাহিনীর অভিযানে নিহত হয় ৬ সন্ত্রাসী। জীবিত উদ্ধার করা হয় ১৩ জনকে। ঘটনার রাতে সন্ত্রাসীদের ছোঁড়া বোমার আঘাতে নিহত হন দুই পুলিশ কর্মকর্তা। এছাড়া গুলশান থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় আটক শাওন নামের এক যুবকও গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
Advertisements

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন