জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে ৪ বাংলাদেশির কারাদণ্ড

    0
    singapur-news
    সিঙ্গাপুরে দন্ডিত ৪ বাংলাদেশি নাগরিক।

    জঙ্গি সম্পৃক্ততার অভিযোগে গত এপ্রিল মাসে আটক হওয়া ৬ বাংলাদেশির মধ্যে ৪ জনকে কারাদণ্ড প্রদান করেছে সিঙ্গাপুরের একটি আদালত। অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা আইনে আটক হওয়া বাংলাদেশি এসব নাগরিকের ২৪ থেকে ৬০ মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

    সিঙ্গাপুরের স্ট্রেইট টাইমসের খবরে বলা হয়, সাজাপ্রাপ্তরা হলেন-মিজানুর রহমান (৩১), রুবেল মিয়া (২৬), নুরুল ইসলাম সওদাগর (৩১) এবং ইসমাইল হাওলাদার (২৯)। গত ৩১ মে তারা আদালতে তাদের অপরাধ স্বীকার করেছিল।

    এদের মধ্যে মিজানুরকে ৬০ মাস, রুবেল ও নুরুল ইসলামকে ৩০ মাস এবং ইসমাইলকে ২৪ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

    খবরে বলা হয়, সন্ত্রাসী কার্যক্রমে অর্থায়নের অভিযোগে তাদের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

    তাদের এই শাস্তি গণনা শুরু করা হবে ২৭ মে থেকে। ওইদিন তারা আদালতে হাজির হয়েছিলেন।

    প্রসিকিউশনের পক্ষ থেকে আদালতে বলা হয়, মধ্যপ্রাচ্যের ভয়ানক সন্ত্রাসী সংগঠন আইএসের সঙ্গে যোগাযোগের পর গত মার্চে মিজানুর সিঙ্গাপুরে প্রবাসী কয়েকজন বাংলাদেশিকে নিয়ে একটি দল গড়েন, যার নাম দেওয়া হয় ইসলামিক স্টেট ইন বাংলাদেশ।

    সিঙ্গাপুর পুলিশ জানিয়েছে, সাজাপ্রাপ্ত বাংলাদেশির সবাই ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় সিঙ্গাপুরে গিয়ে জঙ্গিবাদে জড়িয়েছিল। এদের মধ্যে মিজানুর এস-পাসধারী মাঝারি পর্যায়ের দক্ষ কর্মী, বাকিরা সবাই ওয়ার্ক পারমিটধারী শ্রমিক হিসেবে সিঙ্গাপুরে ছিলেন।

    আটক ৬ জনের মধ্যে ৪ জনের কারাদণ্ড প্রদান করা হলেও বাকি ২ জন তাদের দোষ অস্বীকার করেছেন। তাই তাদের বিচার কার্যক্রম এখনো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এরা হলেন, জামান দৌলত (৩৪) ও লিয়াকত আলি মামুন (২৯)।

    আদালতে বলা হয়, সাজাপ্রাপ্তদের সবারই নির্দিষ্ট ভূমিকা ছিল। তাদের নেতা ছিলেন মিজানুর রহমান এবং মামুন ছিলেন তাদের ডেপুটি। রুবেল মিয়া ছিলেন অর্থ ব্যবস্থাপক। জামান ও সোহেল নিরাপত্তার বিষয়টি দেখতেন এবং জাবেদ মিডিয়ার দিকটি নিয়ন্ত্রণ করতেন।

    মার্চ ও এপ্রিলে আটক হওয়া আরও ৮ জনের সদস্য ছিলেন এরা। ওই আটজন জাহাজ মেরামত প্রতিষ্ঠানে কাজ করতেন। তারা তাদের দলের নাম দিয়েছিল ইসলামিক স্টেট ইন বাংলাদেশ।

    খবরে বলা হয়, তাদের পরিকল্পনা ছিল দেশে ফেরত গিয়ে বড় ধরনের নাশকতা তৈরি করা।

    Advertisements

    কোন মন্তব্য নেই

    একটি মন্তব্য দিন