বিষয়গুলো মানুন, মোজা দুর্গন্ধ হবে না

0

মোজা নিয়ে জীবনে বিপত্তিতে পড়েননি, এমন মানুষ পাওয়া ভার। কর্মক্ষেত্র থেকে শুরু করে স্কুল-কলেজ সর্বত্র অন্যকে যেমন বিপদে ফেলেন, নিজেও পড়েন লজ্জায়। কারণ, তার পায়ের মোজা দিয়ে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। কিন্তু, কিছু বিষয় মানলেই আপনি এর থেকে রক্ষা পেতে পারেন। আসুন আজ জেনে নেই, কিভাবে দূর করবেন মোজার গন্ধ—

মোজা কেন দুর্গন্ধ হয়?

হাত-পায়ের তালুতে প্রচুর স্নায়ু থাকে। তাই গরমে বা খানিকক্ষণ ঢাকা থাকলে এসব স্থান ঘামে। আর সেই ঘাম থেকেই তৈরি হয় দুর্গন্ধ।

দূর করার উপায়:

. ঘাম কম হোক বা বেশি, চামড়ার যত্ন ও ঘামের গন্ধ থেকে বাঁচতে সুতির মোজা ব্যবহার করুন।

. খাদ্য তালিকাতেও পরিবর্তন আনুন, খুব মশলাদার খাবার বিপাক প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করে। বদহজম বা অম্লতা ঘন ঘন হলে তা ঘামের গন্ধ আরও বিশ্রী হয়।

. চা-কফির নেশা থাকলে এড়িয়ে চলুন। যেকোনো উত্তেজক পানীয় শরীরে হরমোন নির্গমনে সাহায্য করে। তাতে স্নায়ু উত্তেজিত হয় পরোক্ষে। ফলে সহজেই ঘাম হয়।

. জুতোকে মাঝে মাঝেই রোদে দিন। জুতোর ভেতরে আলো-বাতাস পৌঁছলে ছত্রাক, ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়ার প্রকোপ কমে।

. একই মোজা পরপর দু’দিন ব্যবহার করার অভ্যাস ত্যাগ করুন। অনেকেরই এই প্রবণতা থাকে। তা অত্যন্ত বদভ্যাস।

. মোজা পরার আগে সাবান দিয়ে ভালো করে পা ধুয়ে ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে পারেন। গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে পা ধুয়ে নিতে পারেন। তাতে ঘামের প্রকোপ থেকে বাঁচা যায়।

. ভুলেও পায়ে পাউডার লাগাবেন না। এতে পায়ের রোমকূপের মুখে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়, ঘাম বেরতে না পেরে শরীরের অন্যান্য সমস্যা বাড়ায়।

. ছুটির দিনে জুতোয় পাউডার লাগিয়ে শুকনো কাপড়ে মুছে নিন। তাতে চামড়ার নিজস্ব গন্ধ দূরে থাকবে।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন