বাঁশখালীতে ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার দায়ে প্রধান শিক্ষককে গণপিটুনী

0
.

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে চতুর্থ শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে স্কুলটির প্রধান শিক্ষক ফারুক ই আজমকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে তুলে দিয়েছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার (২৪জুলাই) উপজেলার গণ্ডামারা ইউনিয়নের হাদিপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটেছে।

নির্যাতনের শিকার ৪র্থ শ্রেনী ওই শিক্ষার্থী পুলিশকে বলেছে, দুপুরে স্কুলের যাওয়ার পর প্রধান শিক্ষক আমাকে তার রুমে ডেকে নিয়ে ঝাড়ু দিতে বলে।  আমি ঝাড়ু দেয়ার সময় স্যার রুমের দরজা বন্ধ করে দিয়ে আমাকে জড়িয়ে ধরে বিভিন্ন স্থানে হাত দিতে থাকে।  অামি জোর করে ধাক্কা দিয়ে ঝাড়ু ফেলে দিয়ে রুম থেকে বেরিয়ে বাড়ীতে চলে আসি এবং আমার মা বাবকে ঘটনা বলি।

এদিকে স্থানীয়রা জানায়, প্রধান শিক্ষকের এ ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় গ্রামবাসী স্কুল ঘেরাও করে প্রধান শিক্ষক ফারুক ই আজমকে পিটুনী দিয়ে পুলিশে দিয়েছে।

বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোমেনা আক্তার বিষয়টা স্বীকার করে বলেন, ঘটনা শুনার পরপরই আমি উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসারকে ওই স্কুলে পাঠিয়েছি। ঘটনার তদন্ত চলছে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত শেষে প্রমানিত হলে তার বিরুদ্ধে যথাযত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন