চট্টগ্রামে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট

0
.

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে সারাদেশের ন্যায় চট্টগ্রামেও প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনুর্ধ্ব ১৭)। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় চট্টগ্রাম মহানগর এবং জেলাকে উত্তর ও দক্ষিণ দুটো অঞ্চলে বিভক্ত করে আগামী ১৮ হতে ২৫ সেপ্টেম্বর সপ্তাহব্যাপী চলবে এ আয়োজন।

আজ রবিবার বিকালে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক সেমিনার কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এতথ্য জানিয়েছে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন। ইতোপূর্বে মহানগর ও উপজেলার বিভিন্ন স্তরে পর্যায়ক্রমে খেলোয়াড় বাছাই সম্পন্ন হয়েছে উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চট্টগ্রাম দক্ষিনের ৮টি ও উত্তরের ৭টি উপজেলা এবং মহানগরের ৬টি থানার খেলোয়াড়রা এ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করছে। নকআউট পদ্ধতিতে খেলাগুলোর জন্য ভেন্যু নির্ধারণ করা হয়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের শহীদ প্রকৌশলী সামশুজ্জামান স্টেডিয়াম এবং পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী সকল খেলোয়াড়ের জন্ম তারিখ অবশ্যই ৩১ আগস্ট ২০০১ বা তার পরে হতে হবে এবং উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান থাকার কথা জানানো হয় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন বলেন, সারাদেশে প্রথমবারের মত মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল, কলেজ ও সমমানের প্রতিষ্ঠান, ক্রীড়া ক্লাব ও সংগঠনের অংশগ্রহণে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনূর্ধ্ব ১৭)” ২০১৮ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও ক্রীড়া চর্চার মাধ্যমে অনূর্ধ্ব-১৭ বছরের কিশোর-কিশোরীদের শারীরিক, মানসিক ও নান্দনিক বিকাশসাধন, প্রতিযোগিতার মাধ্যমে সহিষ্ণুতা, মনোবল বৃদ্ধি ও খেলাধুলায় উৎসাহী করে গড়ে তোলা এবং ক্রীড়া চর্চায় উদ্বুদ্ধকরণ, মাদকাসক্তি, জঙ্গিবাদসহ সকল অসামাজিক কর্মকাণ্ড হতে বিরত থাকাসহ সর্বোপরি দেশপ্রেমিক ও সুনাগরিক হিসেবে জাতি গঠনের লক্ষ্যে সরকার এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, চট্টগ্রাম জেলার সবক’টি উপজেলায় ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ের খেলা ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। চট্টগ্রাম উত্তর অঞ্চলের ৭টি উপজেলার মধ্যে ফটিকছড়ি, রাঙ্গুনিয়া, সীতাকুণ্ড, হাটহাজারী, রাউজান, মিরসরাই ও সন্দীপ এবং চট্টগ্রাম দক্ষিণ অঞ্চলের মধ্যে আনোয়ারা, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া, বাঁশখালী, বোয়ালখালী, লোহাগড়া, পটিয়া ও কর্ণফুলী পৃথক পৃথক টিম নিয়ে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করবে। এছাড়া চট্টগ্রাম মহানগরের ডবলমুরিং, বন্দর, পাঁচলাইশ, চান্দগাঁও, কোতোয়ালি ও পাহাড়তলী থানার ৬টি টিম নিয়ে সর্বমোট ২১ টি টিম নক আউট পর্বে অংশগ্রহণ করবে।

চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর অঞ্চলের খেলাসমূহ ও জেলা পর্যায়ের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রাম বন্দরের শহীদ প্রকৌশলী সামশুজ্জামান স্টেডিয়াম। এছাড়া চট্টগ্রাম দক্ষিণ অঞ্চলের ৮টি উপজেলার খেলা পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন, পুলিশ কমিশনার, সিএমপি, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, সিভিল সার্জন অফিস, রোভার স্কাউটস, যুব রেড ক্রিসেন্ট, উপজেলা প্রশাসন এবং চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ এ আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করবেন বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন। টুর্নামেন্টে বিপুল সংখ্যক দর্শক সমাগম, ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও ক্রীড়া উৎসবের মধ্য দিয়ে আয়োজনটির সফল সমাপ্তির প্রত্যাশা করেন তিনি।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন