নবাগত ইউএনও সাথে সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়
“আমি সীতাকুণ্ড থেকে কিছু নিতে আসিনি, দিতে এসেছি”

1
.

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
“আমি সীতাকুণ্ড থেকে কিছু নিতে আসিনি, দিতে এসেছি। আমি আর এসিল্যণ্ড দু’জনেই সীতাকুণ্ড বাসির কল্যাণে কাজ করে যাবো। আমি রাজনীতিবিদ নই, আমার জনপ্রিয়তারও দরকার নাই। রাষ্ট্রের কাছে স্বচ্ছ থাকতেই পারলেই হলো। সরকার আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন কাজ করার জন্য, সবচে বড় কথা হচ্ছে মানুষের সেবা করা। সীতাকুণ্ড যতদিন থাকবো যতটুকু সম্ভব মানুষের কল্যাণে তথা সীতাকুণ্ডবাসীর সেবা দিয়ে যাবো।”

আজ শনিবার (১৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ইউএনওর উপজেলা কার্যালয়ে সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাব’র সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ও সদস্য বৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মিল্টন রায় এসব কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ কামরুজ্জামান। উপস্থিত ছিলেন সীতাকুণ্ড প্রেসক্লাবের সভাপতি সেকান্দার হোসাইন,সাধারণ সম্পাদক সুমিত্র চক্রবর্তীসহ প্রেসক্লাবের ২৯ জন সদস্য। ইউএনও মিল্টন রায় বলেন, সাংবাদিকরা হচ্ছেন সমাজের দর্পন, তাদের লিখনীর মাধ্যমে সমাজের অসংগতি তুলে আনা হয়। সীতাকুণ্ডের কল্যাণমূখী কাজের জন্য তিনি সাংবাদিকদের সহযোগীতা কামনা করেন।

প্রথম মন্তব্য

  1. এখানেও মিথ্যা । প্রেসক্লাবের ২৯ জন সদস্য এর কথা বলা হয়েছে । আসলে কি ২৯ জন ছিল ? সবাই যদি উপস্থিত থাকতো তাহলে ভারতে থাকা সাংবাদিকরা ইউএনও সাথে দেখা করতে দেশে এসেছিল ? দুঃখিত আমি এমণ মন্তব্য করার পক্ষে না কিন্তু সত্যকে সত্য দোষ কিসে ?

একটি মন্তব্য দিন