৫০ লাখ টাকার মুক্তিপণের জন্য খালাতো ভাইকে অপহরণ
লোহাগাড়ার আবাসিক হোটেল থেকে ৪ দিন পর অপহৃত কলেজ ছাত্র উদ্ধার

0
.

৫০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবীতে অপহরণ করা এক কিশোরকে ৪ দিন পর চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আবাসিক হোটেল থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ সময় মো. হোসেন (৩০) নামে অপহরণকারী চক্রের একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে একটি খেলনার পিস্তল ২টি ধারালো চুরি ও চেতনানাশক ঔষধ।

গতকাল রবিবার থেকে আজ সোমবার ভোর পর্যন্ত টানা এই অভিযান চলে।

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি-বন্দর) এসএম মোস্তাইন হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের সাতকানিয়া নিজ বাড়ি থেকে কলেজে যাওয়ার জন্য বের বের হলে কিশোর সাদেক হোসেন সাকিবকে অপহরণ করা হয়। মূলত খালুর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিতে সাকিবের আপন খালাতো ভাই মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জয় (২৮) এই অপহরণের পরিকল্পনা করে। অভিযানের আগে পালিয়ে যাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয় নি।

.

জানাগেছে, অপহ্নত কিশোর সাকিব ঘটনার দিন বাড়ীর সামনে থেকে তার খালাতো ভাই জাহাঙ্গীর বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সাকিবের বাবা সাতকানিয়া থানায় একটি জিডি দায়ের করেন। পরে টেলিফোনে সাকিবের বাবার কাছে ৫০ লাখ চাঁদা দাবি করা হয়। এ নিয়ে সাতকানিয়া থানায় অভিযোগ দায়েরের পর সাতকানিয়া থানা পুলিশ অভিযান শুরু করে। কিন্তু অপহরণকারী চক্র বার বার তাদের অবস্থান পরিবর্তন করায় পুলিশ সফল হতে পারেনি। পরে তারা জানতে পারে। অপহরণকারী চক্র নগরীর পাহাড়তলীতে অবস্থঅন করতে। নগর গোয়েন্দা পুলিশ সেখানে অভিযান চালানোর আগেই অপহরণকারীরা সরে পড়ে। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে পুলিশও অপহরণকারীদের অবস্থানকরা জায়গায় অভিযান চালাতে থাকে। শেষে লোহাগাড়া উপজেলার বটতলী এম.কে.শপিং সেন্টার এর তয় তলা এম.কে.বোডিং আবাসিক হোটেলের ৩০৪ নম্বর কক্ষে অভিযান চালিয়ে কলেজ ছাত্র সাকিবকে উদ্ধার করা হয়।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য দিন